আগৈলঝাড়ায় জনতার হাতে দুর্ধর্ষ চোর আটক। পুলিশের কাছে সোপর্দ।

0
61

মঞ্জুর লিটন বরিশাল জেলা প্রতিনিধিঃ আগৈলঝাড়ায় জনতার হাতে দুর্ধর্ষ চোর আটক হয়েছে। আগৈলঝাড়ায় অহরহ ঘটছে চুরির ঘটনা এরই ধারাবাহিকতায়।আজ বুধবার বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলা ঐতিহ্যবাহী গৈলা বাজারে সকাল ১০.০০ ঘটিকায় চুরির সময় জনতার হাতে আটক হয়েছে এক চোর।

সরজমিনে গিয়ে জানা যায় পার্শ্ববর্তী গৌরনদী উপজেলার উত্তর পালরদীর হুমায়ুন এর ছেলে মাসুম (২৫) দীর্ঘদিন যাবৎ অত্র এলাকার বিভিন্ন চুরির সাথে জড়িত। আজ গৈলা বাজারের কুদ্দুস সরদার এর মালিকানাধীন তনিমা ফার্মেসিতে ঔষধ চুরির সময় হাতেনাতে ধরা পড়ে। এর আগেও বিভিন্ন সময় অতি মূল্যবান ঔষধ চুরি করে উক্ত চোর যাহা সিসিটিভিতে দেখা যায়। চোর মাসুম সাংবাদিককে জানায় সে এর আগেও উক্ত দোকান থেকে বিভিন্ন সময়ে ঔষধ চুরি করেছে। তনিমা ফার্মেসির স্বত্বাধিকারী কুদ্দুস সরদার জানায় প্রায় সত্তর হাজার (৭০,০০০) টাকার অধিক মূল্যের মূল্যবান ঔষধ সামগ্রী এর আগে চুরি করেছে যাহা সিসিটিভিতে দেখা যাচ্ছে। এলাকার কয়েকটি অভিনব চুরির ঘটনায় ভুক্তভোগীরা উক্ত মাসুমকে সনাক্ত করেন। মাসুম এর আগেও কয়েকটি চুরির ঘটনার সাথে জড়িত ছিল বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেন। এরমধ্যে রথখোলার রাকিব সরদার এর টেলিকম ও বিকাশ দোকান থেকে ৫০ হাজার টাকা (ক্যাশ বাক্স ভেঙে) ও প্রতারণার মাধ্যমে ৩০,০০০ এবং বেলুহার বাবুল ভূঁইয়ার ছেলে মানিক ভূঁইয়ার বিকাশের দোকান থেকে অভিনব কায়দায় ৩০,০০০ টাকা প্রতারণার মাধ্যমে নিয়েছে যাহার অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

গৈলা বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুশান্ত কর্মকার জানান কিছু বহিরাগত চোরের কারণে এলাকার শান্তি বিনষ্ট হচ্ছে। তাই উক্ত চোরের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

গৈলা বাজার কমিটি চোর মাসুমকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করাছে। এসময় এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি, স্থানীয় ইউপি সদস্য, গৈলা বাজারের ব্যবসায়ীগণ ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

চোর মাসুম বর্তমানে আগৈলঝাড়া থানা হেফাজতে আছে।