advertisement

ইউপি নির্বাচনে ২৩ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত!

হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি :
হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১১ টি ইউনিয়নে ৫৬ জন চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছিলেন। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগের তিন প্রার্থীসহ মোট ২৩ জন প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।
নির্বাচন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কাস্টিং ভোটের আট ভাগের এক ভাগ ভোট যারা পাবেন না, তারা জামানত হারাবেন।
মাধবপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী করে যারা জামানত হারিয়েছে, তারা হলেন— ১নং ধর্মঘর ইউনিয়নে সাইফুর রহমান তাঁর প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা হচ্ছে ৯৫ ভোট। ২নং চৌমুহনী ইউনিয়নে সৈয়দ আমানউল্লাহ ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ৭ ভোট । ৩নং বহরা ইউনিয়নে শাহ মো. আল আমিন পেয়েছেন ৯০ ভোট। ৪নং আদাঐর ইউনিয়নে জামানত হারানো মো. আশেক মিয়া পেয়েছেন ৫৪৭ ভোট, মো. আল আমিন ৩৬২ ভোট ও চকদা মামুন মাহমুদ পান ৪৮ ভোট। ৫নং আন্দিউড়া ইউনিয়নে জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়া আলফাজ আলী পান ১৪২ ভোট ও এখলাসুর রহমান সিরাজী ৩২১ ভোট। ৬নং শাহজাহাপুর ইউনিয়নে আবুল কালাম আজাদ পেয়েছেন ১ হাজার ৫৩৮ ভোট। ৭নং জগদিশপুর ইউনিয়নে শেখ আব্দুল জলিল মনুর প্রাপ্ত ভোট ৯৪০ ও নাছির উদ্দিন খানের প্রাপ্ত ভোট ৩৯৯। ৮নং বুল্লা ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. শামীমুর রহমান ভোট পান ১ হাজার ৭৫টি। ৯নং নোয়াপাড়া ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী শেখ মোজাহিদ বিন ইসলাম ১ হাজার ২৫৪ ভোট পেয়ে জামানত হারান। আজিজুর রহমান ৮৩ ভোট ও সৈয়দ আদেল আহমেদ প্রিন্স ১২০ পেয়ে জামানত হারান। ১০নং ছাতিয়াইন ইউনিয়নে জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে বেশি। ওই ইউনিয়নে যারা  জামানত হারিয়েছেন, তারা হলেন একেএম বায়েজিদ বোস্তামী ১ হাজার ৫৪৯ ভোট, জিয়াউর রহমান ৭৬৮ ভোট, মো. সানিউর রহমান মানিক ৭৪ ভোট, রোকন মিয়া ৫২ ভোট ও মহিবুর রহমান ২০২ ভোট পান। ১১নং বাঘাসুরা ইউনিয়নে আওমামী লীগের প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে মো. এখলাছ মিয়া পান ১ হাজার ৮৬৯ ভোট ও জাপার কামরুজ্জান ১ হাজার ২৫ ভোট পেয়ে জামানত হারিয়েছেন।
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক পঠিত