ইতিহাস নিষ্ঠুর, সে সব কিছু মনে রাখে: ফারুকী

বিনোদন ডেস্ক

ঢাকাই সিনেমার খ্যাতিমান নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। গুলশানের হলি আর্টিজান নিয়ে বানানো তার ‘শনিবার বিকেল’ ছবিটি দীর্ঘ প্রায় চার বছর ধরে নানান বাহানায় সেন্সরে আটকে আছে। তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে সংশোধনের চিঠি পাঠানো হবে বলা হলেও এখনও সে চিঠি পাননি নির্মাতা। অপেক্ষা ও হতাশা সব মিলিয়ে ফারুকীর কণ্ঠে নিয়মিত বিষাদের সুর ফুটে ওঠে।

সোমবার (৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এক ফেসবুক পোস্টে ক্ষোভ ঝাড়েন ফারুকী। দেশে তার সিনেমা আটকে থাকলেও একই ঘটনা নিয়ে নির্মিত ভারতীয় সিনেমা ‘ফারাজ’ ঠিকই মুক্তি পাচ্ছে।

তিনি লেখেন, “প্রিয় বাংলাদেশ। প্রিয় তথ্য মন্ত্রনালয়। গুলশানের হলি আর্টিজান নিয়ে নির্মিত ভারতীয় ছবি ‘ফারাজ’ মুক্তি পাচ্ছে ৩ ফেব্রুয়ারি। আর এই বঙ্গদেশের এক অধম ফিল্মমেকার ওই ঘটনার অনুপ্রেরনা নিয়ে ‘শনিবার বিকেল’ বানিয়ে আজকে চার বছর সেন্সরে আটকা।”

ফারুকী তার সিনেমায় নতুন কোনো চরিত্র যুক্ত করেননি কিংবা কাহিনি নতুন করে সাজাননি বলেও জানান। তারপরও সমস্যাটা আসলে কোথায় জানতে চান ‘শনিবার বিকেল’ নির্মাতা।

তিনি আরও লেখেন, ‘আমাদের ছবি আর্টিজানের ঘটনা পুনর্নির্মাণ করে নাই, এমনকি ওই ক্যাফের ভেতরের কোনো চরিত্র পুনর্নির্মাণও করে নাই! তারপরও এই সাজা পাওয়ার একমাত্র কারন কি এই দেশের নাগরিক হওয়া?’ সবশেষে সংশ্লিষ্ট মহলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি যোগ করেন, ‘ইতিহাস নিষ্ঠুর, সে সব কিছু মনে রাখে।’

এর আগে বলেন, “বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছিল, ‘শনিবার বিকেল’ ছবির আপত্তির জায়গাগুলো চিহ্নিত করে সংশোধনের একটি তালিকা নির্মাতাদের দেওয়া হবে। এখনও পর্যন্ত সেই চিঠি আমরা পাইনি।”

উল্লেখ্য, গুলশানে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার ছায়া অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে ‘শনিবার বিকেল’ ছবিটি। এতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, জাহিদ হাসান, মামুনুর রশীদ, ইরেশ যাকের, ইন্তেখাব দিনার, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, ইয়াদ হুরানি প্রমুখ।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -