উপসচিবের স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া পরিপত্র। 

0
7

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব জাকিয়া পারভীনের স্বাক্ষর জাল করে টিকেএস হেলথকেয়ার লিমিটেডের পক্ষে কোভিড-১৯ সরঞ্জাম ক্রয় ও জনবল নিয়োগে অনুমোদন সংক্রান্ত একটি ভুয়া পরিপত্র সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

এ ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার (২০ জুলাই) সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম প্রধান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ পরিপত্রটিকে ভুয়া ও গুজব বলা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, টিকেএস হেলথকেয়ার লিমিটেডের পক্ষে কোভিড-১৯ সরঞ্জাম ক্রয় ও জনবল নিয়োগে অনুমোদন সংক্রান্ত সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের (অনুনোমোদিত) পরিপত্রটি ভুয়া ও একটি মিথ্যা গুজব।

লক্ষ্য করা যাচ্ছে, বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে গতকাল ১৯ জুলাই থেকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব জাকিয়া পারভীনের স্বাক্ষর কপি পেস্ট করে একটি পরিপত্র জারি করা হয়েছে বলে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে, যা সর্বাংশে মিথ্যা তথ্য সম্বলিত।

পত্রটিতে বলা হয়েছে, ১১/০৭/২০২১ তারিখের আবেদন সাপেক্ষে সারাদেশব্যাপী কোভিড-১৯ র‍্যাপিড টেস্টের সব সরঞ্জাম এবং দক্ষ জনবল নিয়োগ দিয়ে প্রাথমিকভাবে র‍্যাপিড কিট ডিভাইস আসার পর টিকেএস হেলথকেয়ার লিমিটেডকে প্রত্যেকটি ইউনিয়ন পরিষদে কাজ শুরু করা অনুমোদন প্রদান করা হলো। সামাজিক মাধ্যমগুলিতে ছড়িয়ে পড়া এ তথ্যটি সর্বাংশে মিথ্যা ও একটি গুজব বলে নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া।

এ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া জানান, দুঃসময়ে জাতি যখন করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নিরলস লড়াই করে যাচ্ছে, সেসময় কোভিড মহামারিকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণির অসাধু লোকজন অপতৎপরতা দেখাচ্ছে এবং মিথ্যা, বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করে ফায়দা লুটে নিতে অপচেষ্টা করে যাচ্ছে।
স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব এসব অসাধু লোকজনের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে অতি দ্রুত এদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন।