এহসান গ্রুপের এরওয়ারেন্ট ভূক্ত আসামী দের গ্রেপ্তারের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

 

 

পিরোজপুর প্রতিনিধি:-

 

আজ সোমবার (৯জানুয়ারী )
জাতীয় প্রেসক্লাবে
পিরোজপুরের এহসান রিয়েল এস্টেট এন্ড বিল্ডার্স লিঃ কর্তৃক প্রতারনার শিকার হয়ে ক্ষতিগ্রস্থ সদস্যবৃন্দ এক সংবাদ সম্মেলন করেন।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন মোঃ হারুন অর রশিদ তিনি বলেন ,আমরা এহসান রিয়েল এস্টেট এন্ড বিল্ডার্স লিঃ পিরোজপুর কর্তৃক প্রতারনার শিকার হয়ে ক্ষতিগ্রস্থ সদস্যবৃন্দ এহসান রিয়েল এস্টেট এর বিরুদ্ধে আইনের সহায়তা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন সময় একাধিক মামলা করি,

মাননীয় আদালত তদন্ত সাপেক্ষ্যে আসামীদের নামে একাধিক গ্রেপ্তারি ওয়ারেন্ট জারি করেন, আসামীদের একাধিক গ্রেপ্তারি ওয়ারেন্ট থাকা সত্যেও অজ্ঞাত কারণে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী আসামিদের গ্রেপ্তার করছে না।

কর্তৃপক্ষের অবহেলার সুযোগ নিয়া আসামীরা ক্ষতিগ্রস্থ সদস্যদের জীবন নাসের হুমকি ধামকি দিতেছে এবং আসামীদের কাছে থাকা সদস্যদের অফিসিয়াল সকল গুরুত্বপূর্ণতথ্য কাগজপত্র গুমসহ জমি বিক্রি করা ও সদস্যদের টাকা পাচার করার মাধ্যমে আসামীরা যে কোন সময় দেশ পরিত্যাগ (পালায়ন) করিতে পারে। তাদের মধ্যে আছেনঃ-
০১। আঃ রব খান, উপদেষ্টা, এহসান গ্রুপ। (২৭ টি গ্রেপ্তারি ওয়ারেন্ট)
০২। সালমা আহসান, চেয়ারম্যান, এহসান গ্রুপ। (একাধিক গ্রেপ্তারি ওয়ারেন্ট)
০৩। শামীম আহসান, ক্যাশিয়ার, এহসান গ্রুপ। (একাধিক গ্রেপ্তারি ওয়ারেন্ট)
০৪। শাহ আলম, সভাপতি, এহসান গ্রুপ। (একাধিক গ্রেপ্তারি ওয়ারেন্ট)
০৫। নাজমুল ইসলাম, ম্যানেজার, এহসান গ্রুপ। (একাধিক গ্রেপ্তারি ওয়ারেন্ট)

উক্ত আসামীগণ নিজ বাড়িতে অবস্থানরত আছে, ভূক্তভূগি গ্রাহকরা পিরোজপুর সদর থানায়
বারবার ধরনা দিয়েও
উপদেষ্টা আঃ রব খান সহ বাকীদের গ্রেপ্তারের জন্য অনুরোধ করলে থানা থেকে ইতিবাচক কোন পদক্ষেপ পরিলক্ষিত হয়নি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী থেকে ভুক্তভোগীদের আরো বলা হয় এই বিষয় নিয়ে কোন প্রতিবাদ ও মানব বন্ধন পিরোজপুরে চলবে না।

এহসান গ্রুপের উপদেষ্টা আঃ রব খান ভূক্তভূগিদের হুমকি দিতেছে যে, বরিশালের ডি.আই.জি. এস এম আক্তারুজ্জামানের সাথে আমাদের ভালো সম্পর্ক আছে আইনসৃঙ্খলা বাহিনি আমাদের গ্রেপ্তার করিবে না।

এহসান রিয়েল এস্টেট ক্ষতিগ্রস্থ সদস্যদের স্বার্থরক্ষার পদক্ষেপ কেহই নিতেছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ সদস্যদের দাবিঃ- উপদেষ্টা আঃ রব খান, চেয়ারম্যান, সালমা আহসান, সভাপতি, শাহ আলম, ক্যাশিয়ার, শামীম আহসান সহ সকলকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হোক।
আসামীদের কাছে থাকা ১৭,০০,০০০,০০০/- (সতের হাজার কোটি) টাকা সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে ফেরৎ দেওয়া হোক।

দূর্নীতি দমন কমিশনের মননীয় চেয়ারম্যান/পরিচালক বরাবর দাবি জানাচ্ছি ওয়ারেন্ট ভূক্ত আসামী দের কে পিরোজপুর সদর থানা কেন গ্রেপ্তার করছেন না, তদন্ত করা হোক।

মাননীয় পুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) বরাবর দাবি জানাচ্ছি ওয়ারেন্ট ভূক্ত আসামীদের গ্রেপ্তার করা হোক।
সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন
মোঃ হারুন অর রশিদ ,মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম ,মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান ,মোঃ আব্দুর রশিদ প্রমূখ।

 

 

নিজস্ব সংবাদদাতা:-

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -