ওটিটি প্লাটফর্মকে সেন্সর বোর্ডের আওতায় আনা দরকার মুশফিকুর রহমান গুলজার

0
20

বিনোদন প্রতিনিধি

বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় পরিচালক মুশফিকুর রহমান গুলজার। ২০১৯-২০ সালের বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি হিসেবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালক করেন । বর্তমান অবস্থা নিয়ে মুশফিকুর রহমান গুলজারের সাথে কথা বলেন বার্তা বাজার । প্রশ্নোত্তর আকারে কথোপকথনটি তুলে ধরা হলো

বার্তা বাজার : বর্তমান কি নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন ?
মুশফিকুর রহমান গুলজারের: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে ‘টুঙ্গিপাড়ার দুঃসাহসী খোকা’ নামের একটি চলচ্চিতত্রের কাজ শুরু করতে যাচ্ছি । সেটার কাজ নিয়ে এখন খুব ব্যস্ত । আপনারা সবাই জানেন এটার কাজ অনেক আগে করার কথা কিন্তু করোনার কারনে কোথাও যেতে পারি নি । কারন আমার এই কাজে বেশিভাগ বয়স্ত আর শিশুরা কাজ করবে ।
বার্তা বাজার সেন্সর বোর্ডে পরিচালকরা দাবি করেছে একজন পরিচালক থাকবে এটা আপনি কিভাবে দেখছেন ? মুশফিকুর রহমান গুলজারের এটা তো আগে থেকে হয়ে আসছে । অনেক সময় অনেকে কোন জায়গায় কি হবে এটা অনেকে বোঝে না তাই একজন পরিচালক থাকতে হয় ।

বার্তা বাজার, বর্তমান ওটিটি প্লাটফর্ম জনপ্রিয় বেশি হচ্ছে এটা আপনারা কিভাবে দেখছেন?
মুশফিকুর রহমান গুলজার এটা ভালো কথা কিন্তু কিছু দৃশ্য পরিবর্তন করা দরকার তাই এটা সেন্সর বোর্ডের আওতায় আনা দরকার ।যেমন কিছুদিন আগে একটা ছবি ওটিটিতে মুক্তি পেয়েছে কিন্তু সেন্সর বোর্ডে সেটিকে আটকানো হয়েছে । অনেকে জানে ওটিটি হলো যুবকদের জন্য তাই যা খুশি দেয়া যায় ।

বার্তা বাজার ট্যালেন্ট হাট আগে ছিলো এখন আর নাই কেনো ?
মুশফিকুর রহমান গুলজার এখনো আছে ট্যালেন্ট হাট কিন্তু করোনার কারনে আমরা বন্ধ রেখেছি ।কারন নতুন নায়ক নায়িকা যদি সিলেক্ত হওয়ার পর কাজ না পাই তাহলে এটা আমাদের জন্য অনেক খারাপ একটা বিষয় তাই আমরা এটা বন্ধ রেখেছি । করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আবার চালু হবে ।

বার্তা বাজার, করোনার ভিতর এফডিসির ভাড়া বাড়ানো হয়েছে এটা আপনারা কিভাবে দেখছেন ?
মুশফিকুর রহমান গুলজার: এটা আমরা প্রতিবাদ করি কারন এটার কারনে অনেকে এখন এফডিসিতে ছবি করছে না । সবাই বাইরে যাচ্ছে । তাই আমরা পরিচালকরা এটা কমানো দাবি করেছি ।

বার্তা বাজার, পোস্ট পোডাকশনের কাজ দেশের বাইরে করা হয় তাহলে দেশে কি যোগ্য লোক নাই ?
মুশফিকুর রহমান গুলজার আসলে এটা বাইরে করার মূল কারন হলো দেশে যোগ্য লোকের অভাব । আর যারা এই কাজ করে তাদের সেভাবে প্রস্তুত না করে কাজ করানো হয় । তাই আমরা দেশের বাইরে বেশী করি ।
বার্তা বাজার : সর্বশেষ দর্শকদের উদ্যোশে কিছু বলেন?
মুশফিকুর রহমান গুলজার: আমরা দর্শকদের উদ্যোশে একটা কথা বলবো আপনারা হলে এসে বাংলা ছবি দেখেন । আপনারা হলে এসে ছবি দেখলে আমাদের ছবি দেখার আগ্রহ আরো বাড়বে ।তাই আপনারা হলে এসে বাংলা ছবি দেখবেন।