ওয়ার্ক ভিসাসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিসা পদ্ধতির পরিবর্তন আনছে আরব আমিরাত

0
41

অনলাইন ডেস্ক:

সংযুক্ত আরব আমিরাত ঘোষিত আগামী ৫০ বছরের মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে শ্রম বাজারের প্রতিযোগিতা এবং নমনীয়তা, প্রতিভা ও দক্ষতা বিকাশে উৎসাহিত করতে এবং অধিবাসীদের জন্য স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তার লক্ষ্যে ওয়ার্ক ভিসাসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিসায় ব্যাপক সংস্কার আনতে যাচ্ছে।

দেশটিতে বিদ্যমান আইন অনুযায়ী কেউ চাকরি হারালে কিংবা অব্যাহতি নিলে সর্বোচ্চ ৩০ দিনের মধ্যে নতুন ওয়ার্ক পারমিট নতুবা দেশ ত্যাগের বিধান থাকলেও সংস্কারকৃত আইনে সময়সীমা ৯০ থেকে ১৮০ দিনে উন্নীত করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাতের সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে “প্রজেক্টস অব দ্য ফিফটি” এর অংশ হিসেবে যেসব আইনগত পরিবর্তন আনা হচ্ছে তারমধ্যে প্রধান প্রধান হচ্ছে- এন্ট্রি এবং রেসিডেন্সি সিস্টেমের পুনর্গঠন, কর্মী, বিনিয়োগ, উদ্যোক্তা, শিক্ষার্থীদের জন্য একটি নিরাপদ ও আদর্শ গন্তব্য হিসেবে অবস্থান নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে আধুনিকায়ন করা হচ্ছে।

দেশটির ভিসা পদ্ধতিতে যেসব পরিবর্তন আনা হচ্ছে

– বানিজ্যিক ভ্রমণের অনুমতি ৩ মাস থেকে বাড়িয়ে ৬ মাসে উন্নীত।
– পরিবারের সদস্যদের অধীনে পিতামাতাকে সরাসরি স্পনসর।

– মানবিক ক্ষেত্রে রেসিডেন্সি ১ বছর বৃদ্ধি।

– পিতামাতার বসবাসের ক্ষেত্রে সন্তানদের স্পনসরে বয়স ১৮ বছর থেকে ২৫ বছরে উন্নীত।

– চাকরি থেকে অব্যাহতি কিংবা বরখাস্ত হলে গ্রেস পিরিয়ড ৯০ থেকে সর্বোচ্চ ১৮০ দিনে উন্নীত।

এ ছাড়াও দেশটিতে আগামী ৫০ বছরের মহাপরিকল্পনায় রয়েছে অবকাঠামোগত নতুন নতুন প্রজেক্ট। যা দেশটিকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিশ্বে আরেকবার পরিচিত করে তুলবে।