কবিতা, আকুতি–অমল দাস-বিজিবি,সদস্য।

0
36

সংগ্রহে ঃবড়লেখা বিশেষ প্রতিনিধি

প্রভূগো ক্ষমা করো মোরে তুমি!
আজ এ লগনে, মনুষের ভূবণে
মৃত্যুর আহাজারি শুনতে কি পাও তুমি?
চোকের সামনে লাশের মিছিল! করছে দাফন সকলে।
অশ্রুজলে ভাসিয়ে বেড়ায়! বিদীর্ণ আজ মফস্বলে।।
দেখছি সকল আনাগুনা! লাশবাহী সব এম্বুল্যান্স!
ছুটছে পিছু যাচ্ছে কিছু, আপন জনের চোকের ল্যান্স।
করোনার টিম এসেই দিলো! ঐ লাশেরই দাফন।
সময় নাই আজ, দিতে হবে শত শত কাফন।।
কাফন দিয়ে মুড়িয়ে দিয়ে, দিচ্ছে শুধু কবরে।
বাদ বাকি যা আছে বাকি, জড়ো করছে শ্মশানে।।
ঐ সারিতে আমিওতো থাকবো
যদি এখনই আমাকে যেতে হয়।
করি নাই কিছু তোমাতে প্রভূ, সকলই অপূর্ণ রয়।।

পৃথিবী আজ বড় দুর্দীনে, সুদিন কি ফিরে পাবে না।
সকলই তোমার ই ইচ্ছা, তুমি চাইলে থাকবেনা।

মানুষকে আজ ক্ষমা করো প্রভূ! ঠাঁই দাও তোমার করুণার ছায়া তলে।
ডাকছি আমি কাতর হয়ে; বলছি তোমার চরন ছোঁয়ে! অধমের করো মার্জনা।
তুমি মনোবল দাও, যোগবল দাও, সমন ভয় আর থাকবে না।।

এমন অজানা ভয়ের মাঝে, কেমনে মোরা করবো বাস।
তোমারই তৈরী, এ বিশ্ব বৈরী; তুমি বিহীন কেমনে করবো পাশ।।

এবার নির্ভয় করো প্রভূ,করো মোদের শক্তিমান।
সকল বিপদ-আপদ দূর করে দিয়ে, ধরাকে করাও পূণ্যস্নান।l

কবি,, অমল চন্দ্র দাস ।