কুলাউড়ায় সিএনজি স্টেশনে দীর্ঘ লাইন

মো: রেজাউল ইসলাম শাফি
কুলাউড়া প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজারের তিনটি সিএনজি গ্যাস স্টেশনে চলতি মাসের নির্ধারিত বরাদ্দ শেষ হওয়ায় সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লিমিটেড। এতে বিপাকে পড়েছেন যানবাহনের চালকরা।

মৌলভীবাজার ও রাজনগর উপজেলার এই তিনটি সিএনজি গ্যাস স্টেশন বন্ধ থাকায় কুলাউড়ায় গ্যাস স্টেশনে খুব বেশি চাপ বেড়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার ব্রাহ্মণবাজারের গ্রীণভিউ সিএনজি স্টেশন ও কুলাউড়া শহরের গর্ণভ্যালি সিএনজি স্টেশনে দীর্ঘ লাইন। মৌলভীবাজারসহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে গাড়িতে গ্যাস নিতে এসে সিএনজি অটোরিকশা, গণপরিবহন ও প্রাইভেট যানবাহনের চালকদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

রুজেল মিয়া নামে এক চালক জানান, সোমবার ভোরে মৌলভীবাজার থেকে গাড়িতে গ্যাস নিতে এসেছি। এখনো দীর্ঘ লাইনে আটকা পড়ে আছি। কখন ফিরতে পারব বলতে পারছি না। রুজেলের মতো শত শত চালকরা এসেছেন গাড়িতে গ্যাস নিতে।

কুলাউড়ার দুই সিএনজি স্টেশনের কর্তব্যরত কর্মকর্তাদের সাথে কথা হলে তারা জানান, মৌলভীবাজারের তিনটি সিএনজি গ্যাস স্টেশনে চলতি মাসের নির্ধারিত বরাদ্দ শেষ হওয়ায় জালালাবাদ গ্যাস অফিস এই তিনটির সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ায় খুব বেশি চাপ বেড়েছে কুলাউড়ায়।

প্রতিদিন কয়েক সহস্রাধিক গণপরিবহন ও প্রাইভেট যানবাহনের কারণে ছোটবড় সমস্যারও সৃষ্টি হচ্ছে।

বন্ধ তিনটি সিএনজি স্টেশন হলো মৌলভীবাজার শহরের কুসুমবাগ এলাকার মেসার্স সাজ্জাদুর রহমান সিএনজি ফিলিং স্টেশন, শহরের শমসেরনগর রোডের এমএফ সিএনজি ফিলিং স্টেশন ও রাজনগরের ডেল্টা সিএনজি অ্যান্ড ফিলিং স্টেশন।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -