কুড়িগ্রাম জেলা বাসিকে ঈদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন. সাংবাদিক মোঃ মিজানুর রহমান

0
10

মোঃ মিজানুর রহমান
কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

বছর ঘুরে আমাদের জীবনে আবার ফিরে এসেছে পবিত্র ঈদুল-আযহা। মহান আল্লাহ বছরে আমাদের জন্য দুইটি শ্রেষ্ঠ আনন্দের দিন উপহার দিয়েছেন। এর একটি ঈদুল ফিতর, অপরটি ঈদুল আযহা।

দুই ঈদেরই রয়েছে বিশেষ বৈশিষ্ট্য। ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে

সাংবাদিক মোঃমিজানুর রহমান
জাতীয় দৈনিক মাতৃজগত পত্রিকার
কুড়িগ্রাম বিশেষ প্রতিনিধিঃ
আই পি টিভি ঢাকার ও
বাংলাদেশ সংবাদ প্রতিদিন
ও স্বাধীন নিউজ
ও সিলেট বিডি
ও দৈনিক দেশের মানচিত্র
ও উত্তর বাংলা
ও সিফা নিউজ
ও তাজা খবর লাইফ
কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি..

দুর্নীতি বিরোধী সংগ্রাম পরিষদের কুড়িগ্রাম জেলা সদস্য।

কুড়িগ্রাম জেলা ও দেশ-বাসীকে আমার পক্ষ থেকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক।

ঈদুল আযহা ত্যাগ ও কুরবানির বৈশিষ্ট্যে মন্ডিত। এর সাথে জড়িত রয়েছে হযরত ইব্রাহিম (আ.) ও ইসমাঈল (আ.) এর মহান ত্যাগের নিদর্শন। এই ত্যাগের মূলে ছিল আল্লাহর প্রতি ভালবাসা এবং তার সন্তুষ্টি অর্জন। প্রিয় বস্তুকে উৎসর্গের মাধ্যমে মহান আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি লাভের যে অনুপম দৃষ্টান্ত হযরত ইব্রাহিম (আঃ) স্থাপন করে গেছেন তা বিশ্ববাসীর কাছে চিরকাল অনুস্মরণীয় হয়ে আছে।

পবিত্র ঈদ-উল-আযহায় সামর্থ্যবান মুসলিমগণ মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টি লাভের উদ্দেশ্যে পশু কোরবানি করে থাকে।

কোরবানির পশুজবাই করার সাথে সাথে মানুষের মনের পশুত্বকে কোরবানি করাই ঈদুল আযহার প্রকৃত শিক্ষা। ঈদুলআযহা আমাদের পরমতসহিষ্ণুতা, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান ও আত্মত্যাগের শিক্ষা দেয়।

ঈদ-উল-আযহার এই শিক্ষা আমাদের চিন্তা ও কর্মে প্রতিফলিত করতে হবে। আসুন আমরা সকলে ঈদুল আযহার মর্মবাণী ধারণ করে মহান আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি ও সান্নিধ্য লাভের উদ্দেশ্যে পশু কোরবানির সাথে সাথে মনের পশুত্বকে জবাই করে সমৃদ্ধ, শান্তিপূর্ণ, বৈষম্যহীন, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদমুক্ত সমাজ তথা দেশ গঠনের শপথ গ্রহণ করি।

ঈদের এই অনাবিল আনন্দ ও সুখ-শান্তি বছরের প্রতিদিনই প্রবাহিত হোক দেশের প্রতিটি মানুষের অন্তরে- এই প্রত্যাশায়।

পরিশেষে সবাইকে আবারো পবিত্র ঈদুল ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়ে এবং সকলের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল কামনা করে ধৈর্য্যের সাথে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলা করা এবং এবার শহর থেকে আসা সকলকে অনুরোধ করে বলি! করোনা ভাইরাসের হাত থেকে আপনার প্রিয়জন কে বাঁচাতে সামাজিক দুরত্ব ও হোম কোয়ারান্টাইনে থাকুন।

আপনি সুস্থ থাকলে, সুস্থ থাকবে আপনার পরিবার, সুস্থ থাকবে সোনার বাংলাদেশ। আতংক হবেন না, সচেতন হোন।