কোরবানির পশু জবাইয়ে ব্যস্ত গ্রাম গঞ্জের মানুষ

0
14

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক

ইসলাম ধর্মের সব থেকে পবিত্র উৎসব গুলির মধ্যে একটি হলো ঈদুল আযহা। ঈদুল আযহা বা কুরবানির ঈদকে ত্যাগের উৎসব বলা হয়। এই দিনে সকলেই তার প্রিয় বস্তুকে আল্লাহর নামে কোরবানি করে। এই খুশির ঈদে সকলেই প্রিয়জনদের সোশ্যাল মিডিয়ায় মন খুলে ঈদের শুভেচ্ছা বার্তা শেয়ার করেন।

করোনাভাইরাসের এই কঠিন পরিস্থিতিতে যে যেভাবেই পেরেছে কর্মস্থল থেকে বাড়িতে ফিরেছে। পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ শেষে যে যার সামর্থ মত কোরবানির পশু জবাইয়ের মেতে উঠেছে। তারই ধারাবাহিকতায় গ্রামেগঞ্জে চলছে কোরবানির কাজ।

ইসলামে হিজরী ক্যালেন্ডারের ১২ তম চন্দ্র মাসের জিলহজ্জ মাসের ১০ তারিখ সকাল থেকে ১৩ তারিখ সূর্যাস্ত পর্যন্ত কুরবানী করার সময় হিসেবে নির্ধারিত। এ দিনে বিশ্ব জুড়ে মুসলমানরা কুরবানী দেয় যার অর্থ আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালার খুুুশীর জন্য নির্দিষ্ট দিনে একটি পশুকে জবেহ করা। ইহা পুত্রের পরিবর্তে ইব্রাহিমের একটি মেষের আত্মত্যাগের পুনরাবৃত্তি, যা ইহুদীধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ ধারণা এবং ইসলাম বিশ্বাস করে ঘটনাটিকে। এ উপলক্ষ্যে ইসলামি ধর্মপ্রচারকগণ উক্ত ঘটনাটির উল্লেখকরে মানবতায় সেবায় মুসলমানদেরকে তাদের সময়, প্রচেষ্টা এবং সম্পদ নিয়ে এগিয়ে আসতে উজ্জীবিত করে থাকে।