গরুর গলায় বেঁধে শিশুটিকে এমন শাস্তি! মামা গ্রেপ্তার

0
94

আসাদুল্লাহ–নরসিংদী বিশেষ প্রতিনিধি

ছবি: প্রতিনিধি– স্বাধীন নিউজ

নরসিংদীর শিবপুরে দুষ্টুমির শাস্তি দিতে গিয়ে ৬ বছরের শিশুটির দুই হাত বেঁধে তাকে আবার গরুর গলায় বেঁধে ছেড়ে দেয়া হয় পিচঢালা সড়কে। গরুটি টেনেহিঁচড়ে নিয়ে গেলে শিশুটির শরীরে বিভিন্ন স্থানে ক্ষতের সৃষ্টি হয়। এভাবে নির্যাতনের ফলে শিশুটির এক মামাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার দুপুরে শিবপুর উপজেলার মাছিমপুর ইউনিয়নের মিয়ারগাঁও এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত শওকত আলী মিয়াগাও গ্রামের মৃত রওশন আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, দুই বছর আগে আহত শিশু নাজমুলের বাবা মারা যান। এরপর থেকে তার মা নাসরিন বেগম বাবার বাড়ি মিয়ারগাঁও গ্রামে থাকেন। শুক্রবার বিকেলে শিশু নাজমুল বাড়ির পাশে খেলছিল। এসময় অতিরিক্ত দুষ্টমি করার অভিযোগে শিশুটির চাচাতো মামা শওকত আলী শিশু নাজমুলকে দুই হাত বেঁধে গরুর সাথে বেঁধে দেয়। পরে গরু শিশুটিকে নিয়ে দৌড় দিলে নাজমুল রাস্তায় পড়ে যায়। তখন গরু তাকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যায়। এতে শিশুটির বুকের নিচে ও পেটসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্ষতের সৃষ্টি হয়।

পরে শনিবার দুপুরে শিশুটিকে নিয়ে শিবপুর হাসপাতালে আসেন তার মা ও বোন। এসময় স্থানীয় একজন বিষয়টি ফেইসবুকে লাইভ করলে ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হয়। পরে সন্ধ্যার এ ঘটনার বিচার দাবি করে শিবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন আহত শিশুটির মা নাসরিন বেগম। এরই প্রেক্ষিতে রোববার দুপুরে মিয়ারগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে শওকত আলীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে শিবপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন বলেন, শিশু নির্যাতনের অভিযোগে শওকত আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।