চন্দনাইশে প্রবাসীর উপর হামলা সর্বস্ব ছিনতাই।

 

নিজস্ব প্রতিনিধি।

চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলায় চিকিৎসার জন্য জরুরি দেশে আসা এক প্রবাসীকে দেশীয় অস্ত্র থেকে সর্বস্ব ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

হামলা শিকার প্রবাসী মোঃ ফরিদ, পিতা কবির আহমদ, চন্দনাইশ উপজেলার, চন্দনাইশ পৌরসভার, ৯ নং ওয়ার্ডের,আমজু মুন্সীর বাড়ির বাসিন্দা।

২৪ শে জুলাই বিকেল ৪ টার দিকে বিদেশের ও চিকিৎসার জরুরী কাগজপত্র সহ চন্দনাইশ পৌরসভা সদরে যাওয়ার পথে গাছবাড়ীয়া টাওয়ার এলাকায় পৌঁছালে পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের জুয়েল(২৫) ও ৭ নং ওয়ার্ডের সাখাওয়াত হোসেন (বাচা)(৩৫), উভয়েই প্রবাসী ফরিদের গতিরোধ করে আসামি সাখাওয়াত কোমরে থাকা অস্ত্র দেখিয়ে ও জুয়েল ছুরি গলায় ঠেকিয়ে প্রবাসীর সাথে থাকা দুইটি samsung অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল সেট, ৪০ হাজার নগদ টাকা ও বিদেশের ভিসার কাগজপত্র, চিকিৎসার জরুরী কাগজপত্র সহ সাথে থাকা ট্রাভেল ব্যাগ ছিনিয়ে নেয় যার ভিতরে ছিল বিদেশের মোবাইল সিম সহ গুরুত্বপূর্ণ চাবি ও আনুষঙ্গিক ডকুমেন্ট। এইসময় প্রবাসী চিৎকার চেঁচামেচি করে লোক করার চেষ্টা করলে আসমীরা সাথে থাকা লোহার রড দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করতে থাকে এ সময় স্থানীয় লোকজন চিৎকার চেঁচা মেচি শুনে এগিয়ে আসলে আসামিরা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে আহত প্রবাসী স্থানীয় লোকজনের পরামর্শে জরুরি সেবা ৯৯৯ এ কল দিয়ে বিস্তারিত জানালে তাকে দ্রুত স্থানীয় থানায় অভিযোগ করার পরামর্শ দেন। এই বিষয়ে আহত প্রবাসী ফরিদ চন্দনাইশ রায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। আহত প্রবাসীর অভিযোগ এইসব চিহ্নিত সন্ত্রাসী কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা এলাকার প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় থেকে এলাকায় মাদক ছিনতাই সহ বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় ভুক্তভোগীরা মান সম্মানের ভয়ে প্রতিবাদ করার সাহস পায় না।
এই বিষয়ে চন্দনাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনের সাথে কথা বললে তিনি জানান অভিযোগ লিপিবদ্ধ হয়েছে আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -