জবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি আইনুল,সা. সম্পাদক লুৎফর

তাসদিকুল হাসান, জবি প্রতিনিধি
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (জবিশিস) কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন অধ্যাপক ড. মো. আইনুল – অধ্যাপক ড. লুৎফর পরিষদ। ২১ ডিসেম্বর সকাল ৯টায়  শুরু হয় ভোট গ্রহণ। শেষ হয় দুপুর আড়াইটায়। ভোট গননা শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ড. মো. আবদুল আলীম  ফলাফল ঘোষণা করেন। নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ৬৭৫ জন। ভোট কাউন্ট হয়েছে ৫০৫টি অনুপস্থিত ছিল ১৭০জন ভোটার। এবছর নির্বাচনে অংশ নিয়েছে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন দুই অংশে বিভক্ত নীলদল।
এবারো নির্বাচন অংশ নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি পন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল। ৮ বছর পর এবার নির্বাচনে অংশ নেওয়ার কথা থাকলেও তারা অংশ নেয়নি।
অধ্যাপক ড. মো. আইনুল ইসলাম ও অধ্যাপক ড. আবুল কালাম মো. লুৎফর রহমান প্যানেলের নির্বাচনি অঙ্গীকারে উচ্চশিক্ষা, উচ্চপদে নিয়োগ, গবেষণা বিষয়ক, সভাপতি পদে ড. আইনুল ইসলাম পেয়েছেন ২৯৩ ভোট, সহ সভাপতি পদে ড. মো. সারওয়ার পেয়েছেন ২৭৬ ভোট। কোষাধ্যক্ষ ড. মো. মিরাজ হোসেন পেয়েছেন ২৮৩ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান পেয়েছেন ৩৩৪ জন। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. এ এম এম গোলাম আদম পেয়েছেন ২৯৩ ভোট। সদস্য পদে ড. মো. রফিকুল ইসলাম ২৬৫, আয়েশা আক্তার ২৬৮, ড. মো. আবুল হোসেন ৩৩৪ ভোট, ড. সৈয়দ অলম ২৭৪ ভোট, অধ্যাপক ড. মোঃ সিদ্দিকুর রহমান ৩২৮ ভোট, ড. নুরুল আমিন ২৫৩, ড. মো. আবুল মালেক ২৫২, ড. মো. রফিকুল ইসলাম, ২৫৫,দীপিকা মমজুমদার ২৫৫,নুসরাত জাহান পান্না ২৫৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।
শিক্ষকদের এ নির্বাচনে ১৫টি পদের বিপরীতে লড়ছেন ৩০ জন শিক্ষক। তাদের মধ্যে সভাপতি, সহসভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ পদে একজন করে নির্বাচিত হবেন এবং সদস্য পদে ১০ জন শিক্ষক নির্বাচিত হন। ৬৭৫ জন শিক্ষক এ নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।
এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -