জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে হত্যা চেষ্টায় মাদ্রাসা ছাত্রর উপর হামলা

 

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ

 

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে হত্যা চেষ্টায় এক মাদ্রাসা ছাত্রর উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে গুরুতর জখম হয় শামিম হাওলাদার (মহাশিন) (১৭) নামে ওই মাদ্রাসা ছাত্র। সোমবার দুপুরে উপজেলার উত্তর ভবানীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শামিম একই গ্রামের মৃত্যু নাদের আলী হাওলাদারের ছেলে।

স্থানীয় ও পরিবারের সদস্যরা জানান, শামিম দুপুরে সেলিম হাওলাদারের বাড়ির পাশে নিজ জমিতে কৃষিকাজ করতেছিলো। এসময় একই গ্রামের জাহাঙ্গীর হাওলাদার (৪৫), মোশারেফ হাওলাদার (৫০), ইমাম হোসেন (২২), নাসির হাওলাদার (৩৮), আজিজুল হাওলাদার (২৭) সহ ৬/৭ জন মিলে হত্যা চেষ্টায় হামলা করে। এ হামলায় গুরুতর জখম হয় শামিম।

শামিমের ভাই রবিউল ইসলাম বলেন, আমার ভাই কৃষিকাজ করতে গেছিলো এসময় হামলা করেছে। ওরা আমার ভাইকে হত্যা চেষ্টায় কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। এর আগেও ২ বার হামলা করেছিলো। বোন কারিমা আক্তার বলেন, আমার ভাইকে ওরা মেরেফেলার জন্য বার বার হামলা করে। আমরা আইনের কাছে সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি।

অভিযুক্ত মোশারেফ হাওলাদার অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, রাতে আমার বাড়িতে চাচাতো ভাই
রবিউলসহ ৩/৪জন মিলে জমি দখল করতে আসে। এসময় বাধা দিলে তারা আমাদের উপর হামলা করে।

পিরোজপুর জেলা হাসপাতাল কতৃপক্ষ জানায়, শামিম নামে একজন রোগীকে তার ভাই রবিউলের মাধ্যমে গতকাল সোমবার বিকাল ৪ টার দিকে ভর্তি নেয়া হয়েছে। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মো: এনামুল হক জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে কুপিয়ে জখমের বিষয় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য; শামিম হাওলাদার (মহাশিন) টগড়া কামিল মাদ্রাসার আলিম দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। এর আগে শামিমকে গতবছরের (২২ জুন) বুধবার সকালে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়। এ ঘটনা বিভিন্ন প্রিন্ট এবং অনলাইন মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে।

 

পিরোজপুর সংবাদদাতা:-

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -