জার্মান সরকার সঠিক সময় পূর্বাভাস না দেওয়ায় ইউরোপে বন্যায় মৃত্যু ১৫০ ছাড়ালো

0
12

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

পশ্চিম ইউরোপে বন্যায় মৃত্যু ও নিখোঁজের সংখ্যা ক্রমেই দিন দিন বাড়ছে। কয়েক দিনের বন্যায় কমপক্ষে ১৫০ জন মারা গেছে। নিখোঁজ রয়েছে হাজার হাজার মানুষ। নিখোঁজ ব্যক্তিদের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা স্পষ্ট নয়। নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়ামসহ ইউরোপের আরও কয়েকটি দেশ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তবে এবারের বন্যায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জার্মানির পশ্চিমাঞ্চল। এ অঞ্চলে বন্যার কারণে জরুরি সেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। সেখানে উদ্ধারকাজ অব্যাহত রয়েছে। এ বন্যার সেই অর্থে কোনো পূর্বাভাস ছিল না। এ কারণে আকস্মিক বন্যায় অনেকেই আটকা পড়েছেন। জার্মানির দৈনিক বিল্ড একে ‘মৃত্যুর বন্যা’ বলে আখ্যা দিয়েছে। বন্যার প্রভাবে কিছু কিছু এলাকার সড়ক ও বাড়িঘর ডুবে গেছে।

জার্মানিতেই এ পর্যন্ত কমপক্ষে অন্তত ১০৮ জন মারা গেছে। নিখোঁজ হয়েছে এক হাজার ৩০০ জনের বেশি। বেলজিয়ামে বন্যায় কমপক্ষে ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২০ জনের বেশি নিখোঁজ রয়েছে।

দেশটি বেশ কয়েকটি জেলা একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এ প্রসঙ্গে রাইনল্যান্ড ফ্যালৎস রাজ্যের বাদ নিউইনাহর এলাকার বাসিন্দা অ্যাগ্রন বেরিসচা বলেন, ‘১৫ মিনিটের মধ্যে সবকিছু তলিয়ে গেছে। আমাদের বাসা, অফিস, প্রতিবেশীর ঘর—এখন সবকিছু পানির নিচে।’

এ ছাড়া বন্যার পানির তোড়ে বিভিন্ন এলাকায় ঘরবাড়ি ধসে গেছে, গাছ উপড়ে পড়েছে, গাড়ি ভেসে গেছে। জার্মানির শুল্ড এলাকার বাসিন্দা হান্স-ডাইটার ভ্রানকেন বলেন, তিনি ২০ বছর ধরে ওই এলাকায় বসবাস করছেন। কিন্তু এমন বন্যা কখনো দেখেননি।

এদিকে জার্মানির পাহাড়ের ঢালে অবস্থিত দুর্গম লোকালয়ে পৌঁছাতে উদ্ধারকর্মীদের বেগ পেতে হচ্ছে। এই দুর্যোগময় পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে জার্মানির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্যে নর্থ রাইন ভেস্টফালৎস ও রাইনল্যান্ড ফ্যালৎস রাজ্যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে।

জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলে দুটি রাজ্যের উপদ্রুত এলাকাগুলোয় জার্মান সেনাবাহিনী তাদের বড় সাঁজোয়া যান ও হেলিকপ্টার নিয়ে উদ্ধারকাজ পরিচালনা করছে। ফায়ার সার্ভিস ও স্বেচ্ছাসেবীরা গতকাল রাতেও সার্চলাইট জ্বালিয়ে দুর্গম এলাকাগুলোয় উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছেন। জার্মান সেনাবাহিনীর কয়েক শ সদস্য ও জার্মান টেকনিক্যাল সাহায্য সংস্থার কর্মীরাও ভারী উদ্ধারসামগ্রী নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন। এদিকে আবহাওয়াবিদেরা ওই এলাকায় আরও বৃষ্টিপাতের আভাস দিয়েছেন।

নেদারল্যান্ডস ও লুক্সেমবার্গেও বন্যা পরিস্থিতির নাজুক অবস্থা। নেদারল্যান্ডসের মাসত্রিস শহর থেকে হাজারো মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। খবর পার্সটুডে।