তারকাদের চোখে হুমায়ূন আহমেদ

0
7

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ জুলাই ২০১২। পরলোকে পাড়ি জমান নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ। এই কথা সাহিত্যিক নির্মাতার নাটক, টেলিফিল্ম ও সিনেমায় কাজ করেছেন অনেক তারকা। হ‌ুমায়ূনের মৃত্যুবার্ষিকীতে তারকারা স্মরণ করলেন তাকে।

দেশ রূপান্তরকে জাহিদ হাসান বলেন, ‘হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে আমার সম্পর্ক ছিল ভাই, বন্ধুস্থানীয়। তিনি একই সঙ্গে আমার বড় ভাই আবার শিক্ষকও। আমার ক্যারিয়ারের উন্নয়নে সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছেন হুমায়ূন আহমেদ। তার রচনা ও নির্মাণশৈলীও ছিল অসাধারণ, যা এক দুই বাক্যে বলা সম্ভব নয়। ধারাবাহিক নাটক লিখে তার মতো আর কেউ এত জনপ্রিয়তা পাননি। ’

জাহিদ হাসান আরও বলেন, ‘হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে অনেক কাজ করেছি। তার অনেকগুলো ধারাবাহিকে অভিনয় করেছি। তার সঙ্গে সিনেমাও করেছি। হ‌ুমায়ূন ভাই রাইটার হিসেবে অনেক বড়মাপের।

অভিনয়ের স্বার্থে চরিত্রের বিশ্লেষণে দুর্দান্ত ছিলেন হুমায়ূন আহমেদ। প্রতিটি চরিত্র তিনি যত্ন করে লিখতেন এবং পরিচালনা করতেন। ’
দেশ রূপান্তরকে অভিনেতা মাহফুজ আহমেদ বলেন, ‘হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে কাজের বা মেশার অভিজ্ঞতা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়। কারণ লেখক হিসেবে, নির্মাতা হিসেবে বা ব্যক্তি মানুষ হিসেবেও তিনি ছিলেন ম্যাজিক্যাল মানুষ। তো এমন একজন ম্যাজিক্যাল মানুষের সঙ্গে মেশার অভিজ্ঞতা ভাষায় বলা সম্ভব নয়। ’

তিনি আরও বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে মেশার অভিজ্ঞতা হচ্ছে উনি আমার জীবনের আশীর্বাদস্বরূপ। উনি যেভাবে কাজ করতেন যেভাবে লিখতেন বা নির্দেশনা দিতেন, সেভাবে আগে কেউ করেনি এতটুকু বলতে চাই। আমি কাজের শুরুতেই বরাবরই বলতাম, স্যার, আপনি একটু আমাকে দেখিয়ে দেন। উনি যেভাবে আমাকে দেখিয়ে দিতেন, সেভাবে কাজ করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়, সেটা করতেও পারিনি। কারণ তিনি প্রতিটা বিষয়, প্রতিটা অভিনয় এত গভীরভাবে দেখিয়ে দিতেন যে সেটা একজন অভিনেতার পক্ষে করা কঠিন। কারণ তিনি যে গভীর দৃষ্টিভঙ্গিতে বিষয়গুলো দেখতেন, সেই গভীর দৃষ্টিভঙ্গিতে বিষয়গুলো দেখা আমাদের মতো অভিনেতাদের জন্য খুবই কঠিন। ’

বাকের ভাইখ্যাত অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূরের মতে, তার অভিনয়জীবনের সেরা কাজ ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকের বাকের ভাই চরিত্রটি। হুমায়ূন আহমেদ নিখুঁতভাবে বাকের ভাই চরিত্রটি তৈরি করেছিলেন।