তিনবার দিয়ে হলেও শতভাগ ভোট নিশ্চিত করতে বললেন আ’লীগ নেতা

জেলা প্রতিনিধি | মেহেরপুর |

তৃতীয় ধাপে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন সামনে রেখে দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক বলেছেন, আগামী ২৮ তারিখের (২৮ নভেম্বর) নির্বাচনে নৌকার পক্ষে শতভাগ ভোট দিতে। প্রয়োজনে একবার, দুইবার, তিনবার ভোট দিয়ে শতভাগ ভোট নিশ্চিত করতে হবে। ভোট দিতে গিয়ে কেউ বাধা দিলে তাকেও বাধা দেবেন। নৌকার পক্ষে ভোট ছাড় দেওয়া হয়েছে। ওপেন ভোট দিয়ে ভোটাররা চলে যাবে। এখানে সরকারি লোক কোনো কিছুই বলার ক্ষমতা রাখে না।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) মেহেরপুর গাংনীর ষোলটাকা ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী দেলবার হোসেনের কর্মিসভায় এসব কথা বলেন তিনি। কর্মিসভায় দেওয়া ওই বক্তব্য সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে।

ওই সভায় আওয়ামী লীগ নেতা এম এ খালেককে আরও বলতে শোনা যায়, নৌকার ভোটটি আমরা টেবিলে দেবো। আর মেম্বার প্রার্থীর ভোটটি গোপনে দেবো। এ স্লোগান সবাইকে তৈরি করতে হবে। এখানে প্রশাসন, পুলিশ, প্রিসাইডিং অফিসারদেরও কিছুই করার নেই। কেউ যদি বাধা দেয় তাদের জন্য প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী, এমপি ও আমি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রয়েছি।

ষোলটাকা ইউপির বিদ্রোহী প্রার্থী আনোয়ার হোসেন পাশা বলেন, ‌‘জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক যে উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন তা সুষ্ঠু নির্বাচনের অন্তরায়। নৌকার পরাজয় নিশ্চিত জেনে তিনি ভোটারদের মাঝে ভীতি প্রদর্শনের জন্য এ ধরনের বক্তব্য দিয়েছেন।’

বক্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক বলেন, ‘এটা আমার মূল বক্তব্য নয়। এডিটিং করে আমার মূল বক্তব্য কাটছাঁট করে জুড়ে আমাকে ফাঁসানোর জন্য করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, আমাকে হেয় করার জন্য ফেক আইডি থেকে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। কেউ যদি এটা নিয়ে চ্যালেঞ্জ করে তাহলে তা মোকাবিলা করার মতো সব তথ্য আমার কাছে আছে।’

এ বিষয়ে মেহেরপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবু আনসার বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের এ ধরনের বক্তব্যের কথা শুনেছি। তবে এখনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবো।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -