দেশের একটা টাইগার তো বাঁচল: দিশাকে দেখে কেন মন্তব্য নেটিজ়েনদের

 

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক!

টাইগার শ্রফ (Tiger Shroff) ও দিশা পাটানি (Disha Patani) , একটা সময় একের পর এক খবরের শিরোনামে জায়গা করে নিয়েছিলেন এই জুটি। কারণ একটাই, তাঁদের সম্পর্কের সমীকরণ।

ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছিল এই জুটির প্রেম কাহিনি। এক ভ্যালেন্টাইস ডে-তে সামনে এসেছিল তাঁদের বাগদানের খবরও। প্রত্যেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন কবে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন এই জুটি।

সম্পর্কের খবর পরিবারের অজানা ছিল না। একাধিকবার টাইগার শ্রফের পরিবারের সদস্যেরা দিশাকে নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। তবে তাঁদের নাকি সম্পর্ক ইতি হয় ‘বাঘি ২’ ছবির পরই। গোপনে খবর ছড়িয়ে পড়লেও তা নিয়ে খুব একটা চর্চা হয়নি সিনেপাড়ায়।

কারণ মাঝে মধ্যেই তাঁদের দেখা যেত বিভিন্ন পার্টি-তে। তবে ‘বাঘি থ্রি’ ছবি মুক্তির সময় প্রকাশ্যে যা করেন টাইগার, তা কিছুটা হলেও স্পষ্ট করে দেয় তাঁদের মধ্যে আর কোনও সম্পর্ক নেই।

টাইগার স্পষ্টই জানিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁর নাকি ছোট থেকেই শ্রদ্ধা কাপুরের প্রতি ছিল এক বিশেষ আকর্ষণ। তিনি তা কখনই বলে উঠতে পারতেন না।

সকলেই লুকিয়ে লুকিয়ে স্কুলে দেখতেন শক্তি কাপুরের মেয়ে আসছে। ব্যস, ওখানেই ইতি টানতে হয় বন্ধুত্ব করার ইচ্ছে।

যদিও শ্রদ্ধা কাপুর জানান, এই বিষয় তিনি কোনও দিনই কিছু জানতে পারেননি। তবে দিশা! তিনি কি সত্যি টাইগারের জীবন থেকে সরে গেলেন!

গোটা নেটপাড়া যখন উত্তরের অপেক্ষায়, তখন দিশা পাটানি প্রকাশ্যে ফ্রেমবন্দি হলেন আলেকজান্ডার অ্যালেক্সের সঙ্গে।

একবার নয়, সাম্প্রতিক কালে বারে বারে দেখা গেল এই জুটিকে। আর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন টাইগারের একশ্রেণীর ভক্তরা।

চরম ট্রোল হতে হল দিশা পাটানিকে। নেটিজ়েনরা রসিকতা করে লিখলেন- ‘দেশের একটা টাইগার তো বাঁচল’। যদিও টাইগার বা দিশা তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলতে নারাজ।

 

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -