নতুন কোচের তালিকায় ব্রাজিলের এগিয়ে জিদান, মরিনিও, এনরিকে!

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক!

কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিল কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বাদ পড়ার পরই দলটির কোচের দায়িত্ব ছাড়েন তিতে। এর পর থেকে নতুন কোচ খুঁজছে ব্রাজিল।

আলোচনায় অনেকের নামই উঠে এসেছে। ব্রাজিলের বাইরের অনেকের নামও এসেছে। যদিও ব্রাজিলিয়ান ফুটবলে স্থানীয় কোচ নিয়োগ দেওয়ার একটা ধারা আছে।

কিন্তু ব্রাজিলেরই সংবাদমাধ্যম ‘ল্যান্স’ যে খবর জানিয়েছে, তাতে ব্রাজিলের কোচ হতে আগ্রহী ব্রাজিলিয়ানরা হতাশ হতে পারেন। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, জাতীয় দলের কোচ নিয়োগে চারজনের তালিকা করেছে ব্রাজিল ফুটবল কনফেডারেশন (সিবিএফ)।

এই চারজনকে কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় প্রাধান্য দেওয়া হবে। তবে তাঁদের কেউ ব্রাজিলিয়ান নন। চারজনই ইউরোপিয়ান। নামগুলো বলে দেওয়া যাক-রিয়াল মাদ্রিদের কোচ কার্লো আনচেলত্তি, এএস রোমার কোচ জোসে মরিনিও, এ মুহূর্তে বেকার সময় কাটানো রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক কোচ জিনেদিন জিদান ও বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়ার পর স্পেনের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ানো লুইস এনরিকে।

‘ল্যান্স’ জানিয়েছে, এই চার কোচের তালিকা করা হলেও ব্রাজিলিয়ান কোচদের জন্য দুয়ার খোলা থাকবে। তবে আনচেলত্তি, জিদান, মরিনিও, এনরিকেদের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার থাকবে। গত মঙ্গলবার সিবিএফে গিয়ে তিতে এবং তাঁর কোচিং স্টাফ চুক্তি শেষ করার কাগজে সই করেছেন।

ব্রাজিল জাতীয় দলের সমন্বয়ক পদ থেকেও সরে দাঁড়িয়েছেন জুনিনহো পলিস্তা। ২০০২ বিশ্বকাপ খেলা সাবেক এই অ্যাটাকিং মিডফিল্ডারের বিকল্প খুঁজছে সিবিএফ। বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়ার পর আগামী মার্চে প্রথম মাঠে নামবে ব্রাজিল। সিবিএফ তার আগেই কোচ নিয়োগ দিতে চায়।

তবে উপযুক্ত কোচ পেতে প্রয়োজনে এই সময়সীমা বাড়াবে সিবিএফ। এ মুহূর্তে আনচেলত্তি ও মরিনিও নিজ নিজ দল নিয়ে ইউরোপিয়ান মৌসুমের মাঝপথে আছেন। ‘ল্যান্স’ জানিয়েছে, সে হিসেবে জিদান ও এনরিকের প্রতি সিবিএফের আগ্রহ বেশি। তবে সিবিএফ সভাপতি এদনালদো রদ্রিগেজ কোচ নিয়োগে ব্রাজিলের বাইরে গিয়ে আলোচনা এখনো শুরু করেননি।

তাঁর নেতৃত্বেই নতুন কোচ খুঁজছে ব্রাজিল। রিয়ালের সঙ্গে ২০২৪ সালের জুনে আনচেলত্তির বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে। গত মৌসুমে রিয়ালে ফিরে মাদ্রিদের ক্লাবটিকে চ্যাম্পিয়নস লিগ ও লা লিগা জিতিয়েছেন এই ইতালিয়ান।

তাঁর হাত ধরে ব্রাজিল তারকা ভিনিসিয়ুসও নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছেন। আনচেলত্তির কাছে গত ২৯ ডিসেম্বর ব্রাজিলের কোচ হওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে জানতে চেয়েছিল সংবাদমাধ্যম।

রিয়াল কোচ বলেছিলেন, ‘তারা আগ্রহী হলেও এখনো কেউ যোগাযোগ করেনি। হ্যাঁ, আগ্রহী হওয়ার জন্য ধন্যবাদ। আমার অবস্থান পরিস্কার। আমি এখনো এখানে (রিয়াল মাদ্রিদ) আছি। আর আমি কখনো রিয়ালকে বলতে যাব না, তাদের সঙ্গে আমার রোমাঞ্চকর অভিযাত্রাটা শেষ হয়েছে।

‘আনচেলত্তির সঙ্গে ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়দের সম্পর্ক ঐতিহ্যগতভাবেই বেশ ভালো। রিয়ালে ভিনিসিয়ুসকে সামলানোর আগে এভারটনে রিচার্লিসনকে সামলেছেন আনচেলত্তি। আর এসি মিলানে তাঁর অধীনে খেলেছেন ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি কাকা।

আনচেলত্তির মতো রোমার সঙ্গেও মরিনিওর বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে ২০২৪ সালের জুনে। তবে ব্রাজিলের আগ্রহ নিয়ে পর্তুগিজ কোচ এখনো কিছু বলেননি। রিয়ালের দায়িত্ব ছাড়ার পর থেকে জিদান ফ্রান্সের কোচ হওয়ার অপেক্ষায় ছিলেন।

কিন্তু দিদিয়ের দেশমের সঙ্গে ফ্রান্স ২০২৬ বিশ্বকাপ পর্যন্ত মেয়াদ বাড়ানোয় জিদানের সেই সম্ভাবনা শেষ হয়ে গেছে। ব্রাজিলও ২০২৬ বিশ্বকাপ পর্যন্ত নতুন কোচ নিয়োগ দিতে চায়। এনরিকের সঙ্গেও সিবিএফ এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে যোগাযোগ করেনি।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -