নিয়ন্ত্রণে নেই মহাকাশযান, পৃথিবীর উপর ভেঙে পড়বে ২৩ টনের চিনা রকেট

 

আবার রকেট উত্‍ক্ষেপণ করে বিশ্ববাসীর চিন্তা বাড়াল চিন! গত ৩১ অক্টোবর চিনের মহাকাশ সংস্থা ‘লং মার্চ’ নামের একটি রকেট উত্‍ক্ষেপণ করে। এই রকেটে করেই তিয়ানগং স্পেস স্টেশনে নানা সামগ্রী পাঠিয়েছে চিন।

চিনের মহাকাশ সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, স্পেস স্টেশনে প্রয়োজনীয় সামগ্রী পাঠানোর জন্য এটাই তাদের শেষ উদ্যোগ।

কিন্তু জানা গিয়েছে, সফল উত্‍ক্ষেপণের পরেও রকেটের একাংশ চিনা মহাকাশ সংস্থার নিয়ন্ত্রণে নেই। যার অর্থ এই যে, আরও এক বার পৃথিবীর যে কোনও প্রান্তে ভেঙে পড়তে চলেছে রকেটের ২৩ টন ওজনের একাংশ।

চিনের মহাকাশ সংস্থার আধিকারিক টেড এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, মহাকাশযানের একাংশ ভেঙে পড়ার পর এই ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না হয়, সে বিষয়ে তাঁরা যথাযথ পদক্ষেপ নেবেন। মুয়েলহাপ্টের বক্তব্য, গোটা বিশ্বের ৮৮ শতাংশ মানুষের বিপদের একটা ক্ষীণ সম্ভাবনা রয়েই যাচ্ছে।

যদিও বিশ্ববাসীকে আশ্বস্ত করে তিনি জানিয়েছেন, এই ঘটনার জন্য কারও জীবনহানি হবে না। রকেটের ভেঙে পড়া অংশ কোথায় পড়তে পারে, তা আগাম জানিয়ে দেওয়া হলেও বিপদের সম্ভাবনার বিষয়টি উড়িয়ে দেওয়া হয়নি মহাকাশ সংস্থার তরফে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও ২০২১ সালের এপ্রিল মাসে ৫ থেকে ৯ টন ওজনের লং মার্চ মহাকাশযানের একাংশ ভেঙে পড়েছিল ভারত মহাসাগরে। ২০২০ সালেও চিনের মহাকাশযানের একটি ছোট অংশ আইভরি কোস্টে পড়েছিল বলে জানা যায়।

এই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে আন্তর্জাতিক আইন প্রণয়ন করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীদের একাংশ। এই আইন সব দেশকে মেনে চলতে বাধ্য করা উচিত বলে মত তাঁদের।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -