নিলামে জব্দকৃত বালু ও পাথর ৮৫ লাখ ২৬ হাজার ৭৫০ টাকায় বিক্রি

0
32

মোশারফ হোসেন লিটন সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

তাহিরপুর উপজেলার সীমান্ত নদী যাদুকাটার তীরে টাস্কফোর্স অভিযান চালিয়ে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধভাবে উত্তোলিত ৪০ হাজার ঘনফুট বালু ও ৫৫ হাজার ঘনফুট পাথর জব্দ করে। পরে তা উন্মুক্ত নিলাম ডেকে বিক্রি করা হয়। নিলামে জব্দকৃত বালু ও পাথর ৮৫ লাখ ২৬ হাজার ৭৫০ টাকায় বিক্রি করে তাহিরপুর উপজেলা উপজেলা প্রশাসন।
শনিবার বিকেলে তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহের নেতৃত্বে টাস্কফোর্সের অভিযানে যাদুকাটা নদীর ঘাগটিয়া পাকা রাস্তার মাথা ও সরকারি পুকুরপাড় থেকে এসব বালু-পাথর জব্দ করা হয়। শনিবার দুপুর থেকে অভিযান পরিচালনা করে রাত ৯টার দিকে উন্মুক্ত নিলামে বিক্রির মাধ্যমে অভিযান সমাপ্ত হয়।
উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানাযায়, একটি স্থানীয় একটি প্রভাবশালী চক্র সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গত ৪/৫ মাস যাবৎ ঘাগটিয়া এলাকার বড়টেক, শিয়ালেরটেক, জালরটেক ও পাকা রাস্তার মাথায় নদীর তীর কেটে ও তীর সংলগ্ন জমিতে কোয়ারি তৈরির মাধ্যমে অবৈধভাবে বালু-পাথর উত্তোলন করে স্তূপ করে রাখে। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে এলে টাস্কফোর্স অভিযান চালিয়ে এসব বালু পাথর জব্দ করে উন্মুক্ত নিলামে বিক্রি করে।
টাস্কফোর্সের অভিযানে উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেট অফিসের পরিদর্শক মাইদুল ইসলাম, তাহিরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল লতিফ তরফদার, র‌্যাব ৯ সিলেটের সুনামগঞ্জ সিপিসি ৩-এর ডিএডি আমজাদ আলী খান, সুনামগঞ্জ ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের লাউড়েরগড় সীমান্ত ফাঁড়ির হাবিলদার মোহাম্মদ আব্দুর রহিম।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহ জানিয়েছেন, যাদুকাটা নদীতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে উত্তোলনকৃত করা বালি-পাথর টাস্কফোর্সের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে জব্দ করে উন্মুক্ত নিলামের মাধ্যমে ৮৫ লাখ ২৬ হাজার ৭৫০ টাকা বিক্রি করা হয়েছে।