পদ ছাড়তে চলেছেন ইলন মাস্ক

 

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক! 

৮ শতাংশ ব্যবহারকারী টুইটারের সিইও হিসাবে তার পদত্যাগকে সমর্থন করেছেন।

বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী শিল্পপতি ইলন মাস্ক সবেমাত্র টুইটারের দায়িত্ব নিলেও এখন তিনি টুইটারের সিইও পদ ছাড়তে চলেছেন। বুধবার সকালে এক টুইট বার্তায় এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

২১ শে ডিসেম্বরের ভোরে, মাস্ক টুইটারের সিইও পদ ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে টুইট করেছেন, ইলন মাস্ক লিখেছেন ‘টুইটারের জন্য একজন নতুন সিইও’র সন্ধান করছি।

যোগ্য ব্যক্তিকে খুঁজে পেলেই, আমি টুইটারের সিইও পদ থেকে সরে দাঁড়াব। শুধু সফ্টওয়্যার এবং ইঞ্জিনিয়ারিং পরিষেবার দিকে আমি দেখভাল করব’।

ইলন মাস্ক ১৯ ডিসেম্বর টুইটারে একটি সমীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেন। এই পোলে তিনি ইউজারদের কাছ থেকে জানতে চেয়েছেন, টুইটারের সিইও পদে তার থাকা উচিত কিনা, জনগণ এই ভোটে তাদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। ৫৮ শতাংশ ব্যবহারকারী টুইটারের সিইও হিসাবে তার পদত্যাগকে সমর্থন করেছেন।

যেখানে মাত্র ৪২ শতাংশ ব্যবহারকারী মাস্কের পক্ষে মতামত দিয়েছেন। এই ফলাফল দেখার পর এখন টুইটারের সিইও পদ ছাড়ার ঘোষণা মাস্কের। তবে সিইও পদের দায়িত্ব কে সামলাবেন সে ব্যাপারে কোন বিবৃতি তিনি দেননি।

ইলন মাস্ক টুইটারের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে একের পর এক পরিবর্তন আনা হচ্ছে। টুইটার ব্লু চালু করার সিদ্ধান্তের পর তিনি বেশ কয়েকজন সাংবাদিকের টুইটার অ্যাকাউন্ট ‘নিষিদ্ধ’ করেন।

সিএনবিসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইলন মাস্ক ইতিমধ্যেই ভোটের ফলাফলের বিচারে টুইটারের সিইও পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা করেছেন। যোগ্য ব্যক্তির হাতে এই দায়িত্ব তুলে দিয়েই তিনি এই পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন।

 

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -