পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর অভিনেত্রীদের দিয়ে ফাঁদ পাতার খবরে তোলপাড়

 

 

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক!

পাকিস্তানে রাজনীতি যেনো লেগে আছে সবকিছুতে। জার বাইরে নেই সে দেশের মিডিয়া অঙ্গন। সম্প্রতি পাকিস্তানি অভিনেত্রীদের নিয়ে চাঞ্চল্যকর এক তথ্য ফাঁস করেছেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর এক সাবেক মেজর।

সম্প্রতি দেশটির সেনাবাহিনীর সাবেক মেজর আদিল রাজা নামের সাবেক মেজর নিজের ইউটিউব চ্যানেলের এক ভিডিওতে জানান, অভিনেত্রীদের দিয়ে রাজনীতিবিদদের জন্য ফাঁদ পাতে পাকিস্তান সেনাবাহিনী।

বিষয়টি সামনে আসতেই ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সেই ভিডিওতে কয়েকজন অভিনেত্রীর নাম ইঙ্গিত করায় আরও তীব্র হয়েছে ঘটনাটি।

ইঙ্গিত করা অভিনেত্রীদের তালিকায় আছেন, মাহিরা খান, মেহুশ হায়াত, কুবরা খান ও সজল আলির মতো তুমুল জনপ্রিয় পাকিস্তানি অভিনেত্রীরা। রাজার বিস্ফোরক দাবির পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ট্রোল হচ্ছেন তারা।

এবার প্রতিবাদে সেই সেনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছেন মাহিরারা। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে সজল লিখেছেন, আমাদের দেশ নৈতিকভাবে অবক্ষয়িত ও কুৎসিত হয়ে উঠছে। এটা খুবই দুঃখজনক।

রাজাকে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে কুবরা লিখেছেন, কোনো ভুয়া ভিডিও আমার মর্যাদা ক্ষুণ্ণ করতে পারবে না। কয়েকদিন ধরে আপনি প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। এতদিন আমি চুপ ছিলাম। কিন্তু অনেক হয়েছে, আর নয়।

রাজার উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, যে অভিযোগ করেছেন তা প্রমাণ করতে হবে। এজন্য আপনাকে ৩ দিন সময় দিলাম। এসময়ের মধ্যে প্রমাণিত না হলে আপনাকে জনসম্মুখে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায়, আপনার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করব।

ইনস্টাগ্রামে দীর্ঘ নোট লিখেছেন মেহুশও। তিনি লেখেন, আমি একজন শিল্পী। কাদা ছুড়ে আমার নাম মুছে দেয়া যাবে না। আপনার এই অভিযোগ ভিত্তিহীন। আর যারা অন্ধভাবে তা বিশ্বাস করছেন, সেটা বড়ই লজ্জার। আপনাকে ধিক্কার জানাই।

রাজার ইউটিউব চ্যানেলের নাম ‘সোলজার স্পিকস’। বর্তমানে যুক্তরাজ্যে থাকেন তিনি। সেখান থেকেই নানা বিষয়ে ভিডিও তৈরি করেন পাকিস্তানি কর্মকর্তা।

নতুন পোস্ট করা ভিডিওতে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন রাজা। তিনি বলেছেন, বিভিন্ন সময় নানা কাজে দেশের মডেল-অভিনেত্রীদের ব্যবহার করে তারা। তাদের মধ্যে এম এইচ, এম কে, কে কে, এস এ অন্যতম।

সাবেক মেজর সংক্ষেপে বললেও এসব অভিনেত্রীর নামের পূর্ণরূপ সবারই জানা। এম এইচ- মেহুশ হায়াত, এম কে- মাহিরা খান, কে কে-  কুবরা খান এবং এস এ- সজল আলিকে বুঝিয়েছেন তিনি।

 

 

 

 

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -