ফেনীতে সম্পত্তি বিরোধের জেরে সন্তানের হাতে পিতা খুন

0
91

ফেনী জেলা সংবাদদাতা

অভিযুক্ত সাইফুল

ফেনীতে ছোট সন্তানের হাতে থাকা বাঁশের আঘাতে বৃদ্ধ পিতা সামছুল হক ওরফে লাতু মিয়া (৮০) করুণ মৃত্যু হয়েছে। আজ সন্ধ্যায় সদর উপজেলার শর্শদি ইউনিয়নের পূর্ব দেবীপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত খুনি সাইফুল (৪০) পলাতক রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার ইফতারের আগে জায়গা সম্পত্তি ও গাছের কাঁঠাল কাটাকে কেন্দ্র করে পিতা ও পুত্রের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। ইফতারের পর সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ছেলে সাইফুল ও তার স্ত্রী নাছিমা আক্তার পলি মিলে বৃদ্ধ পিতাকে গালমন্দ করতে থাকে। সামছুল হক ঘর থেকে বের হয়ে গালমন্দের প্রতিবাদ করলে ছেলে ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে এলোপাথাড়ি বাঁশ দিয়ে পেটাতে থাকে। এক পর্যায়ে বৃদ্ধ পিতা গুরুতর আহত অবস্থায় অজ্ঞান হয়ে পড়লে আশপাশের স্থানীয়রা উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। পরে তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়।

এদিকে এ ঘটনার পর স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জানে আলম ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এবং পুলিশকে বিষয়টি জানালে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আতোয়ার রহমান। মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন।

এ বিষয়ে ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) নিজাম উদ্দিন ছেলের হাতে বৃদ্ধ পিতার মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, সদর সার্কেল সহ আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযুক্ত সাইফুল ও তার স্ত্রী পলি পলাতক রয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।