বছরে ৪০-৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করা সম্ভব পান চাষ করে

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক!

ভারতের মাটিতে চাষ হওয়া একটি মূল্যবান জিনিস হল বিটেল লিফ ফার্মিং অর্থাত্‍ পান চাষ। এমন মাটিতে পান চাষ হয়, যেখানে আর্দ্রতা বজায় থাকে।

কৃষি বিশেষজ্ঞদের অভিমত, পান চাষ করে বছরে লক্ষাধিক টাকা আয় করতে পারেন চাষিরা। পান চাষে লাভও হয় প্রচুর। সবুজ সোনা নামে পরিচিত পানকে একটি ঔষধি গাছ হিসেবেও বিবেচনা করা হয়, অর্থাত্‍ এর অনেক ঔষধি গুণও রয়েছে।

পান চাষের জন্য বৃষ্টির এলাকা ভালো। অর্থাত্‍ যে জমিতে আর্দ্রতা আছে সেখানে সহজে পান চাষ করা যায়। দক্ষিণ ভারতের রাজ্যগুলি ছাড়াও, উত্তর-পূর্ব ভারতেও প্রচুর পরিমাণে পান চাষ করা হয়।

এই রাজ্যগুলিতে অন্যান্য ফসলের পাশাপাশি, পান চাষও একই জোরে করা হয়। একটি অনুমান অনুসারে, ভারতে ৫০০টিরও বেশি জাতের পান রয়েছে।

পান চাষের সঠিক উপায় হল তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা। অর্থ, ভালো ফলন ও পাতার গুণগত মান ভালো রাখতে পান গাছগুলোকে ১০ থেকে ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার মধ্যে রাখতে হয়।

তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকলে এক হেক্টরে প্রায় ৮০ লাখ পান চাষ করা যায়। বাজারে চাহিদার উপর নির্ভর করে, আপনি বছরে প্রায় ৪০-৫০ লাখ টাকা আয় করতে পারেন।

পান চাষের প্রস্তুতি আর্দ্র মাটি ছাড়াও হালকা শীতল ও ছায়াময় স্থান পান চাষের জন্য উত্তম বলে বিবেচিত হয়। সঠিকভাবে ক্ষেত চাষের পর ক্ষেত খোলা রেখে দিতে হবে।

বেরেজা অর্থাত্‍ চালার মতো কাঠামো তৈরির আগে দ্বিতীয়বার লাঙল দিয়ে মাটি ভালোভাবে তৈরি করতে হবে। প্রচন্ড গরম এবং ঠান্ডা উভয়ই পান চাষের জন্য ক্ষতিকর। এমন পরিস্থিতিতে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে পলি হাউস বা সেনানিবাস নির্মাণের বিকল্প রয়েছে।

পান চাষের খরচ ও লাভ পান চাষ করতে সময় লাগে না। অর্থাত্‍, বীজ বপনের প্রায় ১২০ দিনের মধ্যে পান কাটার জন্য প্রস্তুত হয়। পান চাষের পাশাপাশি একই জমিতে অন্যান্য লতা জাতীয় ফসলও চাষ করা যায়।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -