বিশ্বের যে স্থানে গেলে দেখবেন প্রাকৃতিক চৌম্বক শক্তি

ভ্রমণ ডেস্ক |

পৃথিবীতে এমন অনেক আশ্চর্যজনক স্থান আছে। তেমনই কিছু স্থানকে মানুষ অলৌকিক স্থান বলেই মানেন। এর অন্যতম কারণ হলো এসব স্থান পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্র হিসেবে বিবেচিত।

পৃথিবীতে এমন অনেক স্থান আছে যেখানে ভূ-চৌম্বকীয় ক্ষেত্র পৃথিবীর অন্যান্য ক্ষেত্রের তুলনায় অনেক বেশি। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কোন স্থানে বিশ্বের ভূ-চৌম্বকীয় শক্তি সবচেয়ে বেশি কাজ করে।

সার্বিয়া

এই দেশ এমন একটি স্থানে যেখানে পৃথিবীর ভূ-চৌম্বকীয় ক্ষেত্র সবচেয়ে শক্তিশালী। বলকান ও প্যানোনিয়ান বেসিনের কাছাকাছি অবস্থিত এই ইউরোপীয় দেশ যেমন সুন্দর তেমনই শীতল। এছাড়া উত্তর মেরুর নিকটবর্তী হওয়ার কারণেই হয়তো সেখানে চৌম্বক ক্ষেত্র বিরাজমান।

উত্তরাখন্ডের কাসার দেবী মন্দির

ভারতেও এমন একটি জায়গা আছে যেখানে পৃথিবীর ভূ-চৌম্বকীয় শক্তি সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী। সেখানে কিছু অনন্য ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক নিদর্শন আছে। এই জায়গাগুলোর মধ্যে একটি হলো উত্তরাখণ্ডের কুমায়ুন অঞ্চল।

লাদাখের ম্যাগনেটিক হিল

লাদাখের ম্যাগনেটিক হিলের সৌন্দর্য দর্শনে হাজারো মানুষ ভিড় জমায় সেখানে। এই পর্বতের পাশে রাস্তায় পার্ক করা যানবাহন কিন্তু ভূমির আকর্ষণের বাধা পেরিয়ে উপরের দিকে উঠতে শুরু করে।

বিশেসজ্ঞদের মতে, এটি শুধু একটি চোখের ভ্রম। রাস্তার লে আউট দেখে মনে হতে পারে এমনটা অর্থাৎ যানবাহন উপরে যাচ্ছে। তবে আসলে রাস্তা নিচের দিকেই যায়।

পেরুর মাচু পিচু

আর একটি আকর্ষণীয় জায়গা যেখানে ভূ-চৌম্বকীয় ক্ষেত্র স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি শক্তিশালী তা হল পেরুর পাহাড়। এই মাচু পিচু পাহাড়ের উপরে একটি দুর্গও নির্মিত হয়েছে। এই জায়গাটাও ম্যাগনেটিক।

ইউনাইটেড কিংডম স্টোনহেঞ্জ

সংযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের স্টোনহেঞ্জ সম্ভবত পৃথিবীর সবচেয়ে অনন্য স্মৃতিস্তম্ভগুলোর মধ্যে একটি। নৃ-তত্ত্ববিদরা এখনো এর প্রকৃতি, উৎস ও উদ্দেশ্য নিয়ে উদ্বিগ্ন। কাঠামোটি রহস্যে আবৃত ও মজার বিষয় হলো, এটির সবচেয়ে শক্তিশালী ভূ-চৌম্বকীয় ক্ষেত্র আছে।

মেরু অঞ্চলের ধ্রুব

উত্তর ও দক্ষিণ মেরু উভয়ই এমন জায়গা যেখানে ভূ-চৌম্বকীয় শক্তি শক্তিশালী। এটি সেই কেন্দ্র যেখান থেকে পৃথিবীর ভূ-চৌম্বকীয় ক্ষেত্র সঞ্চালিত হয়। উত্তর ও দক্ষিণ মেরু এই বৈশিষ্ট্যের সঙ্গে সংযুক্ত।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -