মতলব দক্ষিণে মামীর সাথে অভিমান করে ভাগনীর আত্মহত্যা

0
15

চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার উত্তর দিঘলদী গ্রামে মামীর সাথে অভিমান করে ভাগনী গলায় ফাঁশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার নাম শিলা আক্তার(১৫)। সে স্থানীয় একটি মাধ্যমিক উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেনীতে পড়ে। গত ৬ জুন সন্ধায় মামির সাথে অভিমান করে দশম শ্রেণীর ছাত্রী শিলা আক্তার আত্মহত্যা করেছে রবিবার (৬ জুন) সন্ধ্যায় মতলব পৌর সভার উত্তর দিঘলদী গ্রামের বারোঠালিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হাসপাতাল, পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শিলা আক্তার তার নানার বাড়ীত থেকে পড়ালেখা করে আসছে। ঘটনার দিন বিকালে শিলা আক্তারের মামানী তাদের ঘরের আসবাবপত্র এদিকসেদিক নিচ্ছিলেন।

এসময় শিলা আক্তারের পড়ার টেবিল অন্যত্র সরিয়ে নেয়ায় মামানী নুরুন নাহারের সাথে তর্ক বিতর্ক হয়। সেই তর্কের জের ধরে রাগে অভিমানে সন্ধ্যা আনুমানিক ৭ টায় সবার অজান্তে রান্না ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সে। সন্ধায় শিলাকে ঘরে না দেখে খুজতে বের হয় পরিবারের লেকজন। হঠাৎ করে জাহানারা বেগম (নানী) দেখতে পায় রান্নাঘরের আড়ার সাথে শিলার গলায় ওড়না পেচিয়ে ঝুলতেছে।ডাক চিৎকার দিলে আশপাশের লেকজন এসে তাকে (শিলা) মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে।

নানী জাহানারা বেগম বলেন, শিলা ও তার মামী নুরজাহানের মধ্য তর্কবিতর্ক হয়েছিল। তাই সে ক্ষোভে আত্বহত্যা করে।

শিলা ছোট বেলা থেকেই এখানে থেকে পড়ালেখা করে আসছে। তার জন্মস্থান কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলার বড় কুড়ি গ্রামে, বাবার নাম আমির হোসেন।

এ বিষয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার এসআই রুহুল আমিন বলেন, এ ব্যপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মোঃ রিফাত পাটোয়ারী
চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি