মানিক পীর (রহ.) গোরস্তানে মেয়রের আশ্বাস : কোনো পার্কিং জোন বা চলাচলের রাস্তা নির্মাণ করা হবে না

0
11

সিলেট প্রতিনিধি ঃ

সিলেট সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নগরীর হযরত মানিক পীর (রহ.) গোরস্তানে হাজারো মানুষের কবর খুঁড়ে গার্ডওয়াল নির্মাণ এবং পবিত্র কবরস্থানকে হাঁটাচলা ও উন্মুক্ত ব্যবহারের জন্যে ছেড়ে দেয়ার প্রতিবাদে শুক্রবার বাদ জুমা টিলার পাদদেশে অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সিলেটের সচেতন নাগরিক সমাজ এই অবস্থান কর্মসূচির আয়োজন করে। আয়োজকরা সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীকেও আমন্ত্রণ জানালে তিনি উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখেন।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, জনগণের দাবির প্রেক্ষিতে গার্ডওয়ালের বাইরে যেসব কবর যাচ্ছে সেগুলো অবশ্যই বহাল রাখা হবে। কোনোভাবেই এখানে কোনো পার্কিং জোন বা জনগণের চলাচলের রাস্তা নির্মাণ করা হবে না। শুধুমাত্র বর্তমান সীমানা দেয়ালের লাগোয়া একটি সরু রাস্তা নির্মাণ করা হবে যা দিয়ে মরদেহ গোরস্তানে দাফনের জন্য নেয়া হবে। আর এটি অবশ্যই টিলার মূল সীমানার ভিতরে থাকবে।

এসময় আন্দোলনকারীদের পক্ষে সিলেট মহানগর যুবলীগ নেতা তারেক আহমদ চৌধুরী ও সাংবাদিক মিসবাহ উদ্দীন আহমদ বলেন, আমরা চাই আমাদের স্বজনদের কবরের পবিত্রতা রক্ষা হোক। গার্ডওয়ালে নামে কবরগুলো খুঁড়ে ক্ষতি যা করার করা হয়েছে। এখন আমাদের দাবি গার্ডওয়ালের বাইরে থাকা কবরসমূহকে মূল সীমানার ভিতরে রাখা। মেয়র ও সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ আমাদের দাবি মেনে নিয়েছেন। দ্রুত বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছেন। আমরা আশাবাদি নাগরিক সমাজের সর্বোচ্চ আবেগকে সম্মান জানানো হবে। অন্যথায় আমরা বড় পরিসরে নতুন কর্মসূচির ডাক দিবো।

মহানগর যুবলীগ নেতা তারেক আহমদ চৌধুরীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল হুদা চৌধুরী কয়েস, সাংবাদিক মিসবাহ উদ্দীন আহমদ, ব্যবসায়ী জুনেল আহমদ। নাগরিক সমাজের মধ্যে উত্তর কাজীটুলা এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে ছিলেন স্বাধীন আহমদ, রুহেল আহমদ, প্রবাসী ছাঈম আহমদ, অন্তরঙ্গ সমাজ কল্যাণ সংস্থার সভাপতি আবদুল আহাদ এলিছ, সহ-সভাপতি জামিল আহমদ, রাসেল আহমদ, ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান চৌধুরী পারেছ, আলী হায়দার মজনু, সায়েম আহমদ, যুবলীগ নেতা শাকারিয়া হোসেইন শাকির, ১৭ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম সৌমিক, মিশফাক আহমদ মিশু, সারওয়ার হোসাইন, কাজী রিফাত আহমদ, প্রবাসী আফজাল হোসেন, ব্যবসায়ী জাকারিয়া হোসাইন, রাশেদ আহমদ, মিফতাহ উদ্দিন মিয়াদ, পাবেল আহমদ, দিলওয়ার হোসেন, ইমাদ উদ্দিন, মিনহাজ উদ্দিন আহমদ, মারুফ আহমদ, শতাধিক মানুষ।