মামলায় ঘর ছাড়া বিএনপি ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা

 

পিরোজপুর প্রতিনিধি : দলীয় কার্যক্রমে বাঁধা দেয়ার অভিযোগে পিরোজপুরের ছাত্রলীগের হামলা ও মামলার কারনে আতংকিত হয়ে ঘর ছাড়া জেলা বিএনপি ও উপজেলা বিএনপির ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মীরা। জেলার ৭টি উপজেলার প্রায় সকল উপজেলাতেই বিএনপি ও এর অঙ্গদলের নেতাকর্মীদের উপরে হামলা ও বিস্ফোরক আইনে মামলার কারনে আতংকিত হয়ে ঘর ছাড়া বিএনপির ও এর অঙ্গদলের নেতাকর্মীরা। নাজিরপুর, ইন্দুরকানী, কাউখালী, ভান্ডারিয়া, মঠবাড়িয়ার পরে সর্বশেষ পিরোজপুর জেলা বিএনপির ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দদের দেড় শতাধিক নেতাকর্মীকে আসামী করে মামলা দেয় ছাত্রলীগ এতে বিএনপি ছাত্রদলের সকল নেতাকর্মীরাই পলাতক রয়েছে। ফলে ভয় আর আতংঙ্কে ঘর ছাড়া সকল নেতাকর্মীরা বলে অভিযোগ করেন জেলা বিএনপির ও ছাত্রদল নেতারা।

জেলা বিএনপির আহবায়ক অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন বলেন, জেলার প্রায় সকল উপজেলাতেই বিএনপি ও এর অঙ্গদলের নেতাকর্মীদের মামলা দিয়েছে আয়োমীলীগ ও ছাত্রলীগ। শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) বিএনপির শান্তিপূর্ণ গণমিছিল কে টার্গেট করে ছাত্রলীগ হামলা চালায়। নেতাকর্মীরা বিএনপি কার্যালয়ে আশ্রয় নিলে তারা অর্তকিত ভাবে বিএনপি অফিসে হামলা চালিয়ে ভাংচুড় করে এবং নেতাকর্মীদের আহত করে। আহত বিএনপি ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের হাসপালে নিলে সেখান থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। শুধু সদর উপজেলাতে নয় সকল উপজেলা গুলেতেই একই চিত্র বিরাজমান। জেলার প্রায় ৫ শতাধিক নেতাকর্মীদের নামে মামলা হয়েছে। সবাই এখন ঘর ছেড়ে পলাতক রয়েছে কেউবা জেলে রয়েছে। নির্বিচারে মামলা হামলা বন্ধ করা উচিত।

জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সালাউদ্দিন কুমার জানায়, ছাত্রলীগ পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ছাত্রদল ও বিএনপির নেতাকর্মীদের উপরে হামলা করে। পরে ছাত্রলীগই বাদী হয়ে ছাত্রদল ও বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মামলা দেয়। হামলার সময় প্রশাসনের ভূমিকা নিরব ছিলো। আমরা এর তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার মাহামুদ সজল জানায়, ছাত্রদল ও বিএনপির নেতাকর্মীরা একত্রিত হয়ে হামলার পরিকল্পনা করছিলো তখন পাশ দিয়ে ছাত্রলীগ মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় তারা ইট পাটকেল ছুড়ে হামলা চালায়। ৮ জন ছাত্রলীগ এর নেতাকর্মী আহত হযেছে। বিএনপি জামায়াতের নাশকতা রোধে ছাত্রলীগ মাঠে থেকে কাজ করছে।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি অনিরুজ্জামান অনিক জানায়, শহরকে অচল করে দেয়ার জন্য বিএনপি জামায়াত নাশকতার চেষ্টা করছিলো। ছাত্রলীগের মিছিলে হামলা চালায় পরবর্তিতে ছাত্রলীগ তার প্রতিবাদ করে এত কয়েকজন আহত হয়। পিরোজপুরে জামায়াত বিএনপিকে কোন প্রকার নৈরাজ্য করতে দেয়া হবে না।

পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আ.জ.ম মাসুদুজ্জামান জানান, পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের কয়েকজন আহত হলে ছাত্রলীগ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে।

পিরোজপুর প্রতিনিধি

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -