মিঠাপুকুরে ১১০০ পরিবার পেল খাদ্যসহায়তা

0
12

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

রংপুরের মিঠাপুকুরে নিম্নআয়ের ১১০০ পরিবারকে খাদ্যসহায়তা দিয়েছে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ডপস। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতদরিদ্র ও নিম্নআয়ের এসব পরিবার ত্রাণসহায়তা পেয়ে আনন্দ প্রকাশ করেন।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) দুপুরে মিঠাপুকুর সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খাদ্যসহায়তা প্রদান করা হয়। এসডিসির অর্থায়নে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন ও হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড জাস্টিস প্রোগ্রামের সহায়তায় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের আয়োজন করে ডপস।

বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন মিঠাপুকুর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নিরঞ্জন চন্দ্র মহন্ত, আদিবাসী-বাঙালি সংহতি পরিষদের আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলাম বাবু, এনজিও অবলম্বন’র নির্বাহী পরিচালক প্রবীর চক্রবর্তী, ডপসের নির্বাহী পরিচালক উজ্জ্বল চক্রবর্তী, মানবাধিকারকর্মী শহিদুল ইসলাম, আদিবাসী নেতা বাবলু লাল মার্ডি প্রমুখ।

এর আগে বিভিন্ন এলাকা থেকে খাদ্যসহায়তা পেতে মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জড়ো হতে থাকে সুবিধাভোগীরা। সকাল ১১টায় বিতরণ কার্যক্রম শুরু হলে স্বাস্থ্যবিধি হাতে হাতে পৌঁছে দেওয়া হয় খাদ্যসামগ্রীর প্যাকেট।

সহায়তা হিসেবে দেওয়া প্রতিটি প্যাকেটের মধ্যে ১২ কেজি চাল, ৩ কেজি মসুর ডাল, ৬ কেজি আটা, ২ লিটার সয়াবিন তেলসহ এক কেজি করে লবণ, সুজি, চিনি ও চিড়া রয়েছে। সঙ্গে ছয়টি করে জীবাণুনাশক সাবান দেওয়া হয়।

ডপসের নির্বাহী পরিচালক উজ্জ্বল চক্রবর্তী জানান, করোনাভাইরাসের কারণে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পরিবারছাড়াও সমাজের পিছিয়ে পড়া অবহেলিত জনগোষ্ঠী কষ্টে রয়েছে। বিশেষ করে আদিবাসী ও দলিত পরিবার বিভিন্নভাবে সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত। এ সংকটকালে এই জনগোষ্ঠীর ২ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।