মুহুর্মুহু আতশবাজি আর বিকট শব্দ, পুলিশের কাছে ৩৬৫ ফোন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

ইংরেজি নববর্ষের প্রথম প্রহরে থার্টি ফার্স্ট নাইটে সারাদেশ থেকে শব্দদূষণ সংক্রান্ত ৩৬৫ ফোন পেয়েছে ‘জরুরি সেবা ৯৯৯’। এর মধ্যে অধিকাংশ অভিযোগই ছিল আতশবাজি ও বোমাবাজি নিয়ে। এছাড়াও বিভিন্ন তার এবং বাড়িতে ফানুস পড়ে আগুনের খবরও পাওয়া গেছে।

রোববার স্বাধীন নিউজ কে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ৯৯৯ এর পরিদর্শক (মিডিয়া) আনোয়ার সাত্তার।

তিনি জানান, ৩১ ডিসেম্বর রাত ১২ টার পর সারাদেশ থেকে শব্দদূষণ সংক্রান্ত ৩৬৫টি ফোন এসেছে। এর মধ্যে শুধু ঢাকা মেট্রো এলাকা থেকে ১৬০ টি কলের বিপরীতে সেবা দিতে হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ফানুস থেকে আগুনের ঘটনায় মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোড থেকে রাত ১২ টা ৯ মিনিটে একটি ফোন এসেছিল। তবে ফায়ার সার্ভিস যাওয়ার আগেই আগুন নিভে গেছে।

নববর্ষ উদযাপন সংক্রান্তে ৯৯৯ নম্বরে এই একটিমাত্র অগ্নিকাণ্ডের খবর এসেছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

এদিকে পুলিশের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও নববর্ষের প্রথম প্রহরে ফানুস পড়ে মোহাম্মদপুর ছাড়াও ঢাকার আরও তিনটি স্থানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে একটি পুরান ঢাকার লালবাগ, অপরটি সদরঘাট এবং মিরপুর।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের থার্টি ফার্স্ট নাইটে ওড়ানো ফানুস পড়ে রাজধানীর প্রায় ১০টি স্থানে আগুন লাগে। ওই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না হয় এজন্য এবার রাজধানীতে ফানুস উড়ানো ও আতশবাজির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল ডিএমপি। কিন্তু শনিবার সন্ধ্যা থেকেই এ নিষেধাজ্ঞা মানতে দেখা যায়নি নগরবাসীকে।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -