যেখানে গেলে উড়তে পারবেন রং-বেরঙের হট এয়ার বেলুনে

0
13

ভ্রমণ ডেস্ক

আকাশে রং-বেরঙের বেলুন উড়ে বেড়ানোর সৌন্দর্য সবাইকেই মুগ্ধ করে। কখনো কি হট এয়ার বেলুন দেখেছেন! বিস্ময়কর এই বেলুনগুলো আকাশে উড়লেই শিহরণ জাগে মনে। তবে ভাবুন একবার এই বেলুনে চড়ার অভিজ্ঞতা কেমন হবে?

হট এয়ার বেলুনে ভ্রমণ এক ধরনের রোমান্টিক অভিযান। এই বেলুন আপনাকে ভাসিয়ে নিয়ে যাবে আকাশে। বর্তমানে বেশিরভাগ হট এয়ার বেলুন উড়ে বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে। কেউ শখের বশে বেলুন ভাড়া করে ভ্রমণ করে, আবার কোনো কোনো কোম্পানি এগুলোতে লোগো ব্যবহার করে নিজেদের প্রচার কাজ সারে।

বেলুনের মধ্যে যে বিশাল ঝুড়িটি থাকে, সেটাকে বলা হয় ‘খাম’৷ এটি মূলত নাইলনের দড়ি দিয়ে তৈরি, ভেতরটা অগ্নিনির্বাপক পদার্থ দিয়ে তৈরি। একটি বার্নার থেকে আগুন বের হয়। এই অগ্নিস্ফূলিঙ্গ বেলুনকে বায়ুর তুলনায় হালকা করে দেয়।

যা আকাশে উড়তে সাহায্য করে। বর্তমানে আকাশে ভেসে থাকার এই ব্যবস্থা অনেক দেশে রূপ নিয়েছে উৎসবে। জেনে নিন কোথায় গেলে দেখতে ও চড়তে পারবেন রং-বেরঙের হট এয়ার বেলুনে?

জাপান: ১৯৭৮ সালে জাপানের কিওসু’তে প্রথম ‘সাগা ইন্টারন্যাশনাল বেলুন উৎসব’ শুরু হয়। প্রতিবছর শরৎকালে আয়োজিত এই উৎসবে সুইজারল্যান্ড, বেলজিয়াম, যুক্তরাষ্ট্র থেকে অনেক প্রতিযোগী যোগ দেয়। এই উৎসবটির মূল আকর্ষণ হলো রাতের আকাশে রঙিন বেলুন উড়িয়ে দেওয়ার দৃশ্য। এ সময় আতশবাজি ও গানে চারপাশে হৈ-হৈ কাণ্ড রৈ-রৈ ব্যাপার শুরু হয়।

তাইওয়ান: প্রতিবছর গরমে তাইওয়ানে আয়োজিত হয় ‘তাইতুঙ আন্তর্জাতিক বেলুন ফেস্টিভ্যাল’। এই উৎসবটি পর্যটকদের বহুল প্রতীক্ষিত এক উৎসব। এক মাসব্যাপী পালিত এই উৎসবে বিভিন্ন কার্টুন চরিত্র নির্ভর অসংখ্য হট এয়ার বেলুন আকাশে ভাসে। হট এয়ার বেলুন চড়তে হলে সেখানে উৎসবের এক মাস আগেই বুকিং সেরে ফেলতে হয়।

ফিলিপাইন: জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যেই ‘আন্তর্জাতিক বেলুন ফেস্টিভ্যাল’ অনুষ্ঠিত হয় ফিলিপাইনে। চার দিনব্যাপী আয়োজিত এই উৎসবটি ১৯৯৪ সালে যখন প্রথম অনুষ্ঠিত হয়। তখন এর মূল লক্ষ্য ছিল ফিলিপাইনের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করা। এশিয়া ও ইউরোপ থেকে পর্যটকদের পাশাপাশি অসংখ্য পাইলট এই ফেস্টিভ্যালে যোগ দেয়।

ইংল্যান্ড: অনেক জাকজমকতার সঙ্গে ইংল্যান্ডে প্রতিবছর অনুষ্ঠিত হয় ‘ব্রিস্টল আন্তর্জাতিক বেলুন ফেস্টিভ্যাল’। তিন দিনব্যাপী আয়োজিত এই উৎসবটি আগস্ট মাসে হয়ে থাকে। এই উৎসবে রাতের আকাশ আলোকিত হয়ে ওঠে আতশবাজিতে। আর হট এয়ার বেলুনে করে রাতের আকাশের সেই ঝলমল চেহারা দেখা যায়।

নিউ মেক্সিকো: প্রতি বছরের অক্টোবরে মেক্সিকোতে অনুষ্ঠিত হয় ‘আলবাকার্কি আন্তর্জাতিক বেলুন ফেস্টিভ্যাল’। এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় বেলুন উৎসব। ১৯৭২ সালে মাত্র ১৩টি হট এয়ার বেলুন আকাশে উড়িয়ে এর যাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে এই উৎসবে ৫০০ এরও বেশি এর বেশি হট এয়ার বেলুন আকাশে ওড়ে। ৩৬৫ একর এলাকাজুড়ে নির্মিত বেলুন ফিয়েস্তা পার্কে আকর্ষণীয় সব বেলুন দেখতে ভিড় জমায় শত শত দর্শক।

দড়ি দিয়ে বাঁধা মানুষের চলাচলের জন্য প্রথম হট এয়ার বেলুন আঁকাশে উড়েছিল প্যারিসে ১৭৮৩ সালের ২১ নভেম্বর। ম্যন্টগলফিয়ার ভাইয়েরা প্রথম এই বেলুন তৈরি করেছিলেন। দুই বিশ্ব যুদ্ধেই হট এয়ার বেলুনের বড় ভূমিকা ছিল। ১৯৯৯ সালের মার্চে বারট্রান্ড পিকার্ড এবং ব্রায়ান জোনস হট এয়ার বেলুনে চড়ে বিশ্ব ভ্রমণে সমর্থ হন। আজ ‘হট এয়ার বেলুন ডে’। এ দিনটি উদযাপন করা হয় হট এয়ার বেলুনে গা ভাসিয়ে।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে/সি এন ট্রাভেলার