যে জিকিরে ঈমান তাজা হয়

ইসলাম ডেস্ক |

মানুষের ঈমান বাড়ে এবং কমে। জিকিরের মাধ্যমে এ ঈমান তাজা হয়। আল্লাহর সঙ্গে বান্দার সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হয়। বান্দার ঈমানকে তাজা ও শিরকমুক্ত রাখতে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বিশেষ তাকিদ দিয়েছেন। হাদিসে এসেছে-

১. হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, (প্রত্যেকেই) নিজ নিজ ঈমানকে তাজা করতে থাক। সাহাবাদের কেউ আরজ করল, হে আল্লাহর রাসুল! আমরা কিভাবে নিজ নিজ ঈমান তাজা করবো? তিনি বললেন, (لَا اِلَهَ اِلَّا الله) ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ-এর জিকির বেশি বেশি করতে থাক। (মুসনাদে আহমদ)

২. হজরত জাবির ইবনে আবদুল্লাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি যে, সমস্ত জিকিরের মধ্যে সর্বোত্তম জিকির হলো- (لَا اِلَهَ اِلَّا الله) ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ’ এবং সব দোয়ার মধ্যে সর্বোত্তম দোয়া হলো- (اَلْحَمْدُ لِلهِ) ‘আল-হামদুলিল্লাহ’। (তিরমিজি)

সুতরাং উম্মাতে মুহাম্মাদির উচিত,রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শেখানো পদ্ধতিতে জিকির-আজকার করা। জিকিরের মাধ্যমে নিজেদের ঈমান তাজা করে নেওয়া।

আল্লাহ তাআলা সবাইকে ঈমান তাজা রাখতে হাদিসে শেখানো জিকির বেশি বেশি করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -