রাঙামাটিতে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান, অস্ত্র জব্দ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

রাঙামাটি: রাঙামাটির সদর উপজেলায় অভিযান চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এসময় ঘটনাস্থল থেকে গোলাবারুদসহ অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৬নভেম্বর) বিকেলে নিরাপত্তা বাহিনী সূত্রে এ তথ্য জানানো হয়।

অভিযানে ঘটনাস্থল থেকে একটি ৭.৬২ মি.লি একে-৪৭ (চায়না), ম্যাগাজিনসহ ১৮রাউন্ড এ্যামুনিশন, একটি ৭.৬৫ মি.মি অটোমেটিক পিস্তল (চায়না), ম্যাগাজিনসহ দুই রাউন্ড এ্যামুনিশন, একটি দেশীয় এলজি, দুই রাউন্ড কার্তুজ, একটি ওয়াকিটকি সেট, তিন সেট ইউপিডিএফ সশস্ত্র পোশাক, দুইটি মুঠোফোন, চাঁদা আদায়ের রশিদ এবং নগদ দুই লাখ উনপঞ্চাশ হাজার টাকা জব্দ করা হয়।

নিরাপত্তা বাহিনীর সূত্রটি জানায়- শুক্রবার ভোরে গোয়েন্দা তথ্যর ভিত্তিতে নিরাপত্তা বাহিনী জানতে পারে রাঙামাটি সদর উপজেলার বন্ধুকভাঙ্গা ইউনিয়নের ত্রিপুরাপাড়া এলাকায় ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের প্লাটুন কমান্ডার এবং পরিচালক প্লাবন চাকমাসহ ১৭জনের একটি সশস্ত্র দল চাঁদা আদায়ের লক্ষ্যে সেখানে ক্যাম্প স্থাপন করেছে। খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর একটি দল উক্ত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে।

নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ জব্দ করা হয়েছে।
রাঙামাটি কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ) কবির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জব্দকৃত অস্ত্রগুলো পুলিশ বুঝে নেওয়ার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -