রাঙ্গামাটি রাজস্থলী উপজেলায় নাগরিক কমিটির ৩৬ ঘণ্টার ডাকা অবরোধে প্রথম দিন আজ

 

হারাধন কর্মকার রাজস্থলী।

রাঙ্গামাটি জেলার রাজস্থলীতে নিখোঁজ সালাউদ্দিনের উদ্ধারের দাবিতে বাঙ্গালহালিয়া নাগরিক পরিষদের ডাকে রাজস্থলী, চন্দ্রঘোনা ও বান্দরবান সড়কে (মঙ্গলবার, বুধবার,) ৩৬ ঘন্টা ডাকা অবরোধের প্রথম দিন শান্তি পূর্ণ ভাবে পালিত হয়েছে। বাঙ্গালহালিয়া সাপ্তাহিক বাজার মেলেনি।

২০ ডিসেম্বর মঙ্গলবার ভোর ছয়টা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ডাকা সড়ক অবরোধ রাজস্থলী থেকে কোন প্রকার ছোট বড় যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায় নি।

রাজস্থলী উপজেলায় বাস ষ্টেশন, রাজস্থলী বাজার,হ্নারামুখ,বড়ইতলা, ইসলামপুর বাজার, মুক্তিযোদ্ধা সড়ক, পাথরবন পাড়া, শফিপুর,বাঙ্গালহালিয়া বাজার,কাকড়াছড়ি সড়ক,আমতলা, বটতলা ,ছাগল খাইয়া এলাকার আন্দোলন কারীরা পিকেটিং করতে দেখা গেছে।পিকেটিংগে নেতৃত্ব দেন আন্দোলন কমিটির সভাপতি এমদাদুল হক মিলন, পুলক চৌধুরী, সাবেক ইউপি সদস্য মোতালেব হোসেন, জয়নাল আবেদীন, জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, ইউপি সদস্য বাদশা আলমঙ্গীর, রেজাউল আলম, মিজানুর রহমান, মাসুম সরদার, মাসুম তালুকদার, কাইয়ুম হোসেন মিরাজ প্রমুখ।

নিখোঁজ সালাউদ্দিনের উদ্ধারের দাবিতে আন্দোলনে কর্মসূচি আলোকে বাঙ্গালহালিয়া সচেতন নাগরিক কমিটি বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ রাজস্থলী উপজেলা চত্বর ও বাঙ্গালহালিয়া বাজারে অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

আন্দোলন কমিটির সভাপতি এমদাদুল হক মিলন বলেন শফিপুর এলাকার বাসিন্দা সাবেক প্রয়াত মজিবুর রহমানের চতুর্থ ছেলে নিখোঁজ সালাউদ্দিন রাজস্থলী উপজেলার ঘিলাছড়ি ইউনিয়নে আমতলী পাড়া নামক এলাকায় নিখোঁজ হয়েছেন।

দীর্ঘ ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও এখনো তার কোন সন্ধান মিলেনি। তাই নিখোঁজ সালাউদ্দিনকে উদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত নাগরিক কমিটির দিন দিন কঠোর কর্মসূচি হাতে নিবেন বলে জানান।

আন্দোলনের ৩য় কর্মসূচির অংশ হিসেবে মঙ্গলবার ও বুধবার ৩৬ ঘন্টা সড়ক অবরোধের প্রথম দিনে শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হয়েছে বলে জানান।

রাজস্থলী থানার ওসি জাকির হোসেন তিনি আরো বলেন রাজস্থলীতে সচেতন নাগরিক কমিটির ডাকা অবরোধ কর্মসূচি শান্তি পূর্ণ ভাবে পালিত হয়েছে।

তবে নিখোঁজ সালাউদ্দিনের উদ্ধারের বিষয়টি জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশ মোতাবেক তাকে উদ্ধারের জন্য সকল প্রকার কুশল অবলম্বন করা হচ্ছে বলে জানান। এইদিকে অবরোধ শান্তি পূর্ণ অবস্থায় বজায় রাখতে রাজস্থলী ও বাঙ্গালহালিয়া আর্মি ক্যাম্পের সেনা সদস্যরা এবং চন্দ্রঘোনা থানার পুলিশ বাহিনীরা বেশ কয়েকটি স্থানে কঠোর অবস্থানে থাকতে দেখা যায়।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -