শারীরিক প্রতিবন্ধী আকলিমাকে চাকরি দিলেন জামালপুর পৌরসভার মেয়র।

0
37

জেলা প্রতিনিধি (শেরপুর)

হামাগুঁড়ি দিয়ে কষ্ট করে জামালপুর পৌরসভার দুতলায় মেয়র মহোদয় এর কাছে আসেন শারিরীক প্রতিবন্ধী আকলিমা আক্তার ।

মেয়র মহোদয়কে আকলিমা জানান মাস্টার্স পর্যন্ত পড়াশোনা করেছি সেই সাথে ভালো রেজাল্টও করছি। কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিয়েছি। আমি কি পরিবারের বোঝা হয়েই থাকবো আজীবন। হামাগুঁড়ি দিয়ে অফিসের সিঁড়ি বেয়ে উঠেও চাকরি করতে পারব। আমাকে একটা চাকরি দেন। আমি বাঁচতে চাই। পরিবারের হাল ধরতে চাই। শারীরিক প্রতিবন্ধিত্বকে জয় করে উচ্চশিক্ষা লাভ করেও বেকার মেধাবী আকলিমা আক্তার এভাবেই জামালপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ছানোয়ার হোসেন ছানু এর নিকট আকুতি জানায় একটা চাকরির জন্য।

জামালপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ছানোয়ার হোসেন ছানু আকলিমার কথা শুনে সাথে সাথেই জামালপুর পৌরসভায় কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে চাকরি দেন ও যোগদান করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন।

চাকরী পেয়ে শারীরিক প্রতিবন্ধী আকলিমা আবেগে আপ্লুত হয়ে যান। কান্নাজড়িত কন্ঠে আকলিমা বলেন, এতোদিন একটা চাকরির জন্য অনেকের কাছে গিয়েছি। সংবাদের শিরোনাম হয়েছি। তবুও কেউ একটা চাকরির ব্যবস্থা করেনি। জামালপুর পৌরসভার মানবিক মেয়র আলহাজ্ব ছানোয়ার হোসেন ছানু আমার কথা শুনেই আমাকে চাকরীর ব্যবস্থা করে দিলেন। আজ আমি আর আমার পরিবারের বোঝা নই।

জামালপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ছানোয়ার হোসেন ছানু বলেন, মানুষের পাশে থেকে আত্মমানবতার সেবায় কাজ করে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি নিয়েই মেয়র হয়েছি । প্রতিবন্ধীরা সমাজের একটি অংশ। তাদের অবহেলার কোন সুযোগ নেই। সরকার প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ ভাতা চালু করেছে। প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয় সম্পদ। করোনাকালীন এ দূর্যোগ থেকে তাদেরকেও বাচাতে হবে। প্রতিবন্ধীদের প্রতি সহানুভুতিশীল মানসিকতা নিয়ে দেখার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।