শীতে ঠাণ্ডায় নাক বন্ধমুহূর্ত থেকে স্বস্তি মিলবে কি উপায়ে?

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক!

শীতে ছোট থেকে বৃদ্ধ সবাই ঠাণ্ডা-কাশিতে আক্রান্ত হয়ে থাকেন! এতে নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হওয়াটাই স্বাভাবিক। ছোটদের বেলায় কষ্টটা আরো বেড়ে যায়!

ঠাণ্ডায় নাক বন্ধ হওয়ার অন্যতম কারণ হতে পারে ফ্লু, অ্যালার্জি বা সাইনাস ইনফেকশন। আর এই নাক বন্ধ ভাব কাটিয়ে উঠতে অবশ্যই মুঠো মুঠো ওষুধ আর ন্যাসাল স্প্রে ব্যবহার না করে ঘরোয়া উপায়ে ভরসা রাখুন-

১. রসুন এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। রসুনে থাকা অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান নাকের বন্ধ ভাব কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করে।

এজন্য দুই থেকে তিনটি রসুন কেটে এক মগ জলে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। এরপর সেই জল হালকা গরম অবস্থায় পান করুন। দিনে অন্তত দুইবার এই রসুন জল পান করলে দ্রুতই নাক বন্ধভাব ভালো হয়ে যাবে।

২. এই সমস্যা সমাধানের আরেকটি কার্যকরী উপায় হলো স্নান করা। অবাক হচ্ছেন? গরম জল দিয়ে স্নান করেই দেখুন। গোসলের পর গরম জলে তোয়ালে ভিজিয়ে কিছুক্ষণ মাথা ও মুখে পেচিয়ে রাখুন। মুহূর্তেই স্বাভাবিকভাবে নিঃশ্বাস নিতে পারবেন। তবে খেয়াল রাখবেন, তোয়ালে যেন বেশি গরম না হয়।

৩. শরীরের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান হলো আদা। ঠাণ্ডায় নাক বন্ধ ভাব কাটিয়ে উঠতেও এর জুড়ি মেলা ভার। এজন্য আদা কুচি করে কেটে সঙ্গে সামান্য লবণ মিশিয়ে চিবিয়ে খান। অথবা ব্লেন্ড করে এক টেবিল চামচ আদার রসও গ্রহণ করতে পারেন। কিছুক্ষণ পরেই পার্থক্য টের পাবেন।

৪. রান্নাঘরের অন্যতম একটি উপাদান হলো লেবু। জানেন কি? লেবু ইনফেকশন ও নাক বন্ধ ভাব কাটাতে পারে। এজন্য প্রয়োজন হবে অর্ধেক লেবুর রস, এক গ্লাস জল ও এক চা চামচ মধু। প্রথমে এক মগ জল গরম করে সঙ্গে মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে পান করুন। প্রতিদিন দুই বার এই মিশ্রণটি খেলে নাক খুলে যাবে।

৫. নাক বন্ধের সমস্যা থেকে মুহূর্তেই কার্যকরী উপায় হতে পারে মেনথল। এজন্য গরম জলে কয়েক ফোঁটা মেনথল ছেড়ে দিন। এবার তোয়ালে দিয়ে পাত্র ঢেকে রেখে ভাপ নিন। কিছুক্ষণের মধ্যেই নাক বন্ধ ভাব দূর হয়ে শান্তিতে নিঃশ্বাস নিতে পারবেন।

৬. স্যালাইন স্প্রে এসময় আপনার সঙ্গী হতেই পারে! কারণ ঘরের বাইরে থাকাকালীন এটিই আপনার সমস্যার সমাধান করবে। কয়েক ফোঁটা স্যালাইন স্প্রে নাকে ঢালতেই স্বস্তি মিলবে তাত্‍ক্ষণিক। তবে অবশ্যই স্যালাইন স্প্রে ব্যবহারের পূর্বে চিকিত্‍সকের পরামর্শ নিতে হবে।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -