সদ্য ঘোষিত গজারিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি প্রত্যাখ্যান করে পদ বঞ্চিতদের মিছিল

জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা
স্বাধীন নিউজ (মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি):
 সদ্য ঘোষিত মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটিকে প্রত্যাখ্যান করে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করেছে পদ বঞ্চিতরা। এসময় কমিটি গঠনের ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে উল্লেখ করে পদবঞ্চিতরা জানান, ২৪ ঘন্টার ভিতরে বিতর্কিত কমিটি বাতিল করা না হলে কঠোর আন্দোলনে যাবেন তারা। এসময় মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল মৃধা এবং সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ আহমেদ পাভেলকে গজারিয়ায় অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়।
আজ (বৃহস্পতিবার) বিকালে উপজেলার পুরান বাউশিয়া বাস স্ট্যান্ড এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে উপজেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আহমেদ রুবেলের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল মিছিল বের করেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। তবে পুলিশের হস্তক্ষেপে তারা মহাসড়ক থেকে নেমে যেতে বাধ্য হয়। পরবর্তীতে মহাসড়কের পাশে বিক্ষোভ সমাবেশ করে সেখান থেকে আন্দোলনের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন নেতাকর্মীরা।
সমাবেশে সদ্য সাবেক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আহমেদ রুবেল তার বক্তব্যে বলেন, গতকাল গভীর রাতে যে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে তা সংগঠনের নিয়ম বহির্ভূত। কমিটিতে যাদের স্থান দেওয়া হয়েছে তাদের অধিকাংশ অছাত্র এবং বিবাহিত এমনি কয়েকজনের বিরুদ্ধে ইভটিজিং, নারী নির্যাতনের মামলা চলামান। কমিটি গঠনের আগে সম্মেলন অনুষ্ঠানের কথা থাকলেও সেটি না করে বিপুল পরিমাণ টাকার বিনিময়ে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বিতর্কিত এ কমিটির। এ কমিটির অনুমোদন দেওয়ায় মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়েজ আহমেদ পাভেল এবং সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মৃধাকে গজারিয়াতে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছেন তারা।
তার বক্তব্যে উপজেলা ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক কমিটির সহ সভাপতি রাশেদুল আমিন জনি বলেন, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল মৃধা এবং সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ আহমেদ পাভেল দুজনই কুলাঙ্গার। তাদের বাণিজ্যের কারণে শত শত ত্যাগী নেতাকর্মীর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটেছে। ২৪ ঘন্টার ভেতরে যদি এই কমিটির প্রত্যাহার করা না হয় তাহলে পরবর্তীতে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দিবেন তারা।
এসময় কমিটির সহ -সভাপতি রাশেদুল আমিন জনি,সহ-সভাপতি রাকিব, সহ-সভাপতি শাকিল আহমেদ,সহ-সভাপতি জাহিদ হোসেন,সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, রাসেল মিয়াজী বাবুসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের দুই শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল মৃধা জানান, কমিটি হয়েছে নিয়ম মেনে।নতুন কোন কমিটির হলে এরকম বিক্ষোভ  পদবঞ্চিত করে থাকে।   বিবাহিত, নির্দিষ্ট বয়স অতিক্রম  মাদকসেবী মাদক ব্যবসায়ী এবং কারো  বিরুদ্ধে  মামলা থাকলে তাকে পদ থেকে বাদ দেওয়া হবে ।
উল্লেখ্য, গতকাল ( ১৫ ডিসেম্বর)  রাতে হাবিবুর রহমান হাবিবকে সভাপতি এবং ইউনুস প্রধানকে সাধারণ সম্পাদক করে ছয় সদস্যের গজারিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের একটি কমিটি এক বছরের অনুমোদন দেয় জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল মৃধা এবং সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ আহমেদ পাভেল।
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -