সরকারি ঘর পাইয়া আরাম কইরা কী মরবার পামু’

জেলা প্রতিনিধি, শেরপুর

শেরপুর সদর উপজেলার ভূমিহীন ও স্বামীহারা বৃদ্ধা সকিনা বেগম। অন্যের বাড়ির ভাঙা রান্নাঘরে তার বসবাস। শীতের রাতে বাতাসের মধ্যে অনেক কষ্টে রাত কাটে তার। অনেকের কাছে গিয়েও তার ভাগ্যে জোটেনি প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। তাই বৃদ্ধা সকিনা বেগম হতাশ হয়ে বলেন, ‘সরকারি একটা ঘর পাইয়া আরাম-আয়েশ কইরা কী মরবার পামু?

২নং চরশেরপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের বালুরঘাট গ্রামের বাসিন্দা বৃদ্ধা সকিনা বেগম। তিনি ঢাকা পোস্টকে বলেন, ‘বাবা কী কমু, আমার স্বামী জুলহাস আলী ১২ বছর আগে মারা গেছেন। আমার কোনো ছেলেমেয়ে নেই। স্বামী থাকতে ভাড়া থাকতাম। মাইনসের বাড়ি ভাড়া না দিলে কি থাকবার দেয়? তাই এখন মাইনসের পাকঘরে (রান্নাঘরে) থাহি।’

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -