1. smdsagor24@gmail.com : 01815334574 :
  2. habiburrahmansujon@gmail.com : হাবিবুর রহমান সুজন : হাবিবুর সুজন
  3. : স্বাধীন নিউজ আমাদের : স্বাধীন আমাদের
  4. abdishan123@gmail.com : Abdur Rahman Ishan : Abdur Rahman Ishan
  5. arif.kfj333@gmail.com : Ariful islam :
  6. kmazim1995@gmail.com : Azim Hossen Imran Khan : Azim Hossen Khan
  7. mdsujan458@gmail.com : অ্যাডমিন : Habibur Rahman
  8. hmnaiemsurma@gmail.com : hmnaiem7510 :
  9. holysiamsrabon@gmail.com : Holy Siam Srabon :
  10. mintu9250@gmail.com : kishor01875 :
  11. md.khairuzzamantaifur@gmail.com : Khairuzzaman Taifur : Khairuzzaman Taifur
  12. liakatali870a@Gmail.com : Liakat :
  13. liakatali880a@Gmail.com : Liakat ali :
  14. mirajshakil34@gmail.com : Mahadi Miraj : Mahadi Miraj
  15. niazkhan.tazim@gmail.com : Md. Mehedi Hasan Niaz :
  16. mdnazmulhasanofficial7@gmail.com : Md.Nazmul Hasan :
  17. mdnazmulofficial10@gmail.com : Md Nazmul Hasan : Md Nazmul Hasan
  18. mdtowkiruddinanis@gmail.com : Md Towkir Uddin Anis : Md Towkir Uddin Anis
  19. : Meharab Hossin Opy : Meharab Opy
  20. eng.minto@live.com : Mintu Kanti Nath : Mintu Nath
  21. insmonzur5567@gmail.com : Monzur Liton : Monzur Liton
  22. robiulhasanctg5@gmail.com : Rabiul Hasan :
  23. : Rabiul Hasan : Rabiul Hasan
  24. : Rabiul Hasan : Rabiul Hasan
  25. rubelsheke@gmail.com : Rubel Sk : Rubel Sk
  26. smhasan872@gmail.com : S.M. Mehedi Hasan :
  27. sayedtamimhasan@gmail.com : sayedtamimhasan@gmail.com :
  28. sheikhshouravoriginal@gmail.com : Sheikh Shourav : Sheikh Shourav
  29. admin@swadhinnews.com : নিউজ রুম :
  30. h.m.tawhidulislam@gmail.com : tawhidul : tawhidul
  31. wadudhassan503@gmail.com : Wadud hassan :
  32. Wadudtkg@gmail.com : Wadud khn :
সাজেকের আসল সৌন্দর্য সন্ধ্যার পর। তখন মেঘমুক্ত নীলাকাশ একটু একটু করে অন্ধকারে আচ্ছন্ন যায়। - স্বাধীন নিউজ
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

সাজেকের আসল সৌন্দর্য সন্ধ্যার পর। তখন মেঘমুক্ত নীলাকাশ একটু একটু করে অন্ধকারে আচ্ছন্ন যায়।

প্রতিবেদক
  • আপডেট : সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৯০ বার পড়া হয়েছে।

হাবিবুর রহমান সুজন স্বাধীন নিউজ।

সাজেক ভ্যালিকে বাংলাদেশের দার্জিলিং বলা হয়। মেঘে মেঘে আচ্ছাদন এর পুরো গতর জুরে। ভেলকি লাগার মতই, পুরো ২৪ ঘণ্টায় দেখা মেলে তিনটি আবহের। কখনো প্রচণ্ড গরম, কিছুক্ষণ বাদে বৃষ্টি। বৃষ্টির পরে মেঘের খেলা। অপরূপ রূপে রূপবতী।

সাজেক ভ্যালি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৭০০ ফিট উপরে। রুইলুই এবং কংলাক এ দুই পাড়া নিয়েই মূলত সাজেক। ১৭০০ ফিট উপরে পাহাড়র ঘেঁষেই কটেজগুলা দাঁড়িয়ে। এখান থেকেই গোধূলি, মিষ্টি ভোর কিংবা গভীর রাত পর্যন্ত আকাশ আর মেঘ উপভোগ করা যায়। সাজেকের পাশের ভারতের মিজোরাম। কংলাক পাড়া এই প্রাচ্যের সবচেয়ে উঁচু পাড়া। এটি প্রায় ১৮০০ ফিট উপরে। রুইলুই পাড়া থেকে কংলাক পাড়ায় যাওয়ার জন্য ৩০-৩৫ মিনিট ট্র্যাকিং করতে হয়। তাই পায়ে হেটেই যতে হয়। সবচেয়ে জাদুকরী দৃশ্য হচ্ছে কংলাক পাড়ার উপরে দৃশ্য। একদিকে মেঘের সাড়াশি দৃশ্য অপর পাশে ভারতের মিজোরামের ভয়ঙ্কর সুন্দর পাহাড়। সত্যিই অসাধারণ।
সাজেকে যা দেখবেন

সাজেকের আসল সৌন্দর্য সন্ধ্যার পর। তখন মেঘমুক্ত নীলাকাশ একটু একটু করে অন্ধকারে আচ্ছন্ন যায়। আর মিটিমিটি করে জ্বলে উঠে একটি দুটি তারা। কিছুক্ষণের মধ্যে একটি দুটি থেকে সহস্র তারা চোখের সামনে জ্বলজ্বল করে উঠবে। এরকম তারা ভরা আকাশ জীবনে কখনও দেখেননি হয়তো।

সেটাই হতে পারে আপনার সাজেক ভ্রমণের সবচেয়ে বড় আনন্দ। এমনকি যারা এখনও মিল্কিওয়ে বা আকাশগঙ্গা ছায়াপথ দেখেননি তারাও সাজেক ভ্যালিত এসে জীবনে প্রথমবারের মতো দেখা পেতে পারেন মহাবিশ্বে আমাদের আশ্রয়স্থল আকাশগঙ্গার।

ভোরে সূর্যোদয় দেখতে চাইলে হ্যালি প্যাডে চলে যাবেন অবশ্যই। সেজন্য উঠতে হবে খুব ভোরে। আর চলে যেতে হবে এক বা দুই নম্বর হ্যালি প্যাডে। সাজেকে সূর্যোদয়ের সময় সোনালি আভা সাদা মেঘের ওপর যখন ঠিকরে পড়ে তখন অসাধারণ এক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

যেভাবে যাবেন সাজেক

ঢাকা থেকে খাগড়াছড়ি রুটে শ্যামলী, হানিফ, এস আলম, সৌদিয়া ও শান্তি পরিবহনের বাস চলাচল করে। গাবতলি, কলাবাগানসহ ঢাকা শহরের বিভিন্ন প্রান্তে রয়েছে পরিবহনগুলোর কাউন্টার। ঢাকা থেকে বাস ছেড়ে চট্টগ্রাম রোড হয়ে কুমিল্লা, ফেনী হয়ে চট্টগ্রামের মিরসরাই দিয়ে খাগড়াছড়ি শহরে পৌঁছায়। এতে সময় লাগে ৮ ঘণ্টার মতো।

খাগড়াছড়ি থেকে সাজেকে যেতে হবে খোলা জিপে করে। স্থানীয়দের কাছে এটি চান্দের গাড়ি নামেই পরিচিত। দুই দিনের জন্য ভাড়া করলে আপনাকে গুনতে হবে ৬৫০০-১০,০০০ টাকা। চান্দের গাড়িতে আসন সংখ্যা ১২টি। সাজেক যেতে প্রথমে যেতে হবে দীঘিনালায়। দীঘিনালা নেমে আধা ঘণ্টার জন্য ঘুরে আসতে পারেন হাজাছড়া ঝর্ণা থেকে। সঙ্গে সেরে নিতে পারেন গোসলটাও। কারণ সাজেকে পানির বড্ড অভাব।

বাঘাইহাট থেকে সেনাবাহিনীর এসকর্ট শুরু হয় সকাল ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে। তাই ঐ সময়ের আগেই আপনাকে পৌঁছে যেতে হবে খাগড়াছড়ি থেকে দীঘিনালায়। মনে রাখবেন, একবার সকালের এসকর্ট মিস করলে আবার এসকোর্টে পেতে অপেক্ষা করতে হবে বিকেল অবধি।

দীঘিনালা থেকে প্রথমে যেতে হবে বাঘাইহাট। সেখান থেকে মাচালং হাট হয়ে সরাসরি পৌঁছে যাবেন সাজেকে। খাগড়াছড়ি শহর থেকে সাজেক যেতে মোট সময় লাগবে প্রায় আড়াই ঘণ্টার মতো।

সতর্ক থাকবেন যেসব বিষয়

১। সেনাবাহিনীর ক্যাম্পের ছবি তোলা যাবে না।

২।স্থানীয় লোকজনের ছবি তোলার আগে অবশ্যই অনুমতি নেবেন।

৩। সঙ্গে করে পাওয়ার ব্যাংক নিয়ে যান।

৪। সাজেকে যাবার রাস্তা অনেকটা আঁকাবাঁকা এবং উঁচু নিচু। তাই জীপের ছাদে বা মোটরসাইকেলে সতর্ক থাকুন।

৫। দুই থেকে তিন দিনের জন্য সাজেক গেলে চান্দের গাড়ি রিজার্ভ নেওয়ার দরকার নেই। সেক্ষেত্রে শুধু যাওয়ার জন্যই গাড়ি নিন। আসার সময় অন্য গাড়িতে আসুন। অথবা দীঘিনালা থেকে ফোন করেও গাড়ি নেওয়া যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

আলোচিত সংবাদ

© All rights reserved © 2021 Swadhin News
Design & Developed By : PIPILIKA BD