advertisement

সিএন্ডএফ এজেন্টস নির্বাচনে সম্মিলিত-সমমনা ঐক্যজোটের আত্বপ্রকাশ

ইসমাইল ইমন চট্টগ্রাম মহানগর।

চট্টগ্রাম সিএন্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচন ২০২২-২০২৪ নির্বাচনে সম্মিলিতভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার লক্ষে চারটি দলের সমন্বয়ে ‘ সম্মিলিত-সমমনা ঐক্যজোট’ নামে জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।

সম্মিলিত পরিষদ, সচেতন ফোরাম, সমন্বয় পরিষদ ও সমমনা কল্যাণ পরিষদ মিলে এই জোটের সৃষ্টি করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে ৭ ডিসেম্বর বুধবার জাকজমপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটে। আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ও সভাপতিত্ব করেন জোটের দলনেতা সায়েদুজ্জামান খান।

গিয়াস উদ্দিন ভুইয়ার সঞ্চালনায় সম্মিলিত-সমমনা ঐক্যজোটের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে
বক্তব্য রাখেন জোটের পৃষ্টপোষক সিরাজুল মনোয়ার, জাহিদ হাসান, প্রধান সমন্বয় খন্দকার লতিফুর রহমান আজিম, আহবায়ক মো. সাইফুদ্দিন, যুগ্ম আহবায়ক নরুল আবছার (ইডেন), সদস্য সচিব গোলাম ফারুক ডলার, উপদেষ্টা এটিএম তারেক, সেলিম খাঁন, সাংগঠনিক সম্পাদক ডিসিএএ শাহিন মাহমুদ, বন্দর সম্পাদক জসিম উদ্দিন, নির্বাহী সদস্য এম এ আমান প্রমুখ।

আত্মপ্রকাশ অনুষ্টানে বক্তারা চিটাগাং সিএন্ডএফ অজেন্টস এসোসিয়েংশনের ভামূর্তি পূনরুদ্ধারে এবং চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসে সিএন্ডএফদের ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে আগামী নির্বাচনে সম্মিলিত-সমমনা ঐক্যজোটের পাশে থাকার সমর্থন ব্যক্ত করেন।

নেতৃবৃন্দরা বলেন, বর্তমান পরিষদ নির্বাচনী ইশতেহারে যে অঙ্গীকার করেছে তা পুরণে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। নির্বাচনের প্রথম এজিএমে সংঘবিধিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে অগঠনতান্ত্রিকভাবে এজেন্ডা পাশ করেছে। লাইসেন্স বিধিমালা ২০০৯ ইংরেজির সংশোধনী ২০১৬-২০ ইংরেজির কালো আইন সমূহ সংশোধনে তারা ব্যর্থ হয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, কাস্টমস কমিশনারের অফিস আদেশ/সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে বর্তমান পরিষদ ব্যর্থ হয়েছে। এছাড়াও কাস্টমস হাউসের ল্যাবরেটরীর হয়রানি, ভ্যাট রিটার্ন দাখিল থেকে সদস্যদের মুক্তি দিতে পারেনি। বিল অব এন্ট্রির মাধ্যমে সিএন্ডএফ এজেন্টসদের কমিশন আদায় ও ২০ বছরে বন্দরে পরীক্ষণ শেড-এর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে ব্যর্থতার প্রমাণ দিয়েছে। তাই আসুন বর্তমান ব্যর্থ পরিষদকে বর্জন করে সাধারণ সদস্যদের কল্যাণে সম্মিলিত ঐক্যজোটের নেতৃত্বে আমরা একতাবদ্ধ হয়ে সিএন্ডএফদের অধিকার আদায়ে সোচ্চার হয়।

সম্মিলিত-সমমনা ঐক্যজোটের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে করোনাকালীন সময়ে সিএন্ডএফ পরিবারের যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এছাড়াও অসুস্থ সিএন্ডএফ মালিক ও পরিবারের সদস্যদের সুস্থতার জন্য কোরান খতম, মিলাদ এবং দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক পঠিত