সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুরের মোয়াকোলা গ্রামে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে দুইদিন ধরে অনশন কলেজ ছাত্রী

0
39

সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুরের মোয়াকোলা গ্রামে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে দুইদিন ধরে অনশন কলেজ ছাত্রী,

সেলিম রেজা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার রুপবাটি ইউনিয়নের মোয়াকোলা গ্রামে বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে গত দুইদিন ধরে অনশন করছে আলেয়া খাতুন (১৭) নামের এক কলেজ ছাত্রী, প্রেমিক পলাতক ও প্রেমিকের পরিবারের টালবাহানায় অনশন ভাঙছে না প্রেমিকার। সরেজমিনে ঘুরে অনশনরত কলেজ ছাত্রীর সাথে কথা বলে জানা যায়, মোয়াকোলা নতুন পাড়া বাঁধ সংলগ্ন কুরমান মুন্সীর কলেজ পড়ুয়া ছেলে সেলিম হোসেনের সাথে আত্মীয় বাড়িতে দাওয়াত খেতে এসে পরিচয়ের এক পর্যায়ে মাঝে মাঝেই জামিরতা কলেজে যাওয়ার পথে সেলিম উত্যক্ত করত, এক পর্যায়ে মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে প্রেমের প্রস্তাব দিলে আলেয়া সাড়া দেয়। এরপর থেকর মোবাইল ফোনে নিয়মিত কথা বলা, ম্যাসেজ দিয়ে চ্যাটিং শুরু করে প্রেমের গভীর সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরপর বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়ানো এমনকি বিয়ের আশ্বাসে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। বেশকিছুদিন ধরে প্রেমিক সেলিম বিভিন্ন অযুহাতে তার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। ফলে বাধ্য হয়েই সেলিমকে বিয়ে করার আশায় মঙ্গলবার দুপুর বারোটায় এখানে চলে আসি। আমার উপস্থিতি টের পেয়ে প্রতারক সেলিম বাড়ি থেকে পালিয়েছে, সেলিমের মা আমাকে মারপিট করেছে। প্রেমিকা আলেয়া আরও জানান, তাকে বিয়ে না করলে তার অবস্থানে অটল থাকবেন এমনকি আত্মহত্যারও হুমকি দেন। এ ব্যাপারে সেলিমের মা সাংবাদিকদের জানান, তার সোনার টুকরো ছেলে এমনটা করতে পারেনা। আলেয়া পরিকল্পিতভাবে তার ছেলেকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।
এদিকে প্রেমিকা আলেয়ার বাবা আরমান হোসেন বাদী হয়ে সেলিমের বিরুদ্ধে শাহজাদপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে, উল্লেখ্য আলেয়ার বাবা একজন স্যানিটরি ব্যবসায়ী এবং পোরজনা ইউনিয়নের বড় বাশুড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা। আলেয়া জামিরতা ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী।