সিলেটে তরুণীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪

0
33

রুবেল আহমদ সিলেট থেকেঃ

সিলেটের গোলাপগঞ্জে বন্ধুদের নিয়ে প্রেমিকাকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২২ মে) দুপুর ২টার দিকে উপজেলার বাঘা ইউপির গণ্ডামারা চরোরাগোল্লা নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৪জন কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হল – এসএমপির শাহপরান থানার পীরের চক গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে আক্তার হোসেন (২৩), গোলাপগঞ্জের বাঘা ইউপির তুরুকভাগ গ্রামের লিলু মিয়ার ছেলে আব্দুল হাকিম (২০), বাঘা দক্ষিণ কান্দিগাঁও গ্রামের মঈন উদ্দিনের ছেলে রাজন আহমদ (২২) ও বাঘা খালপাড় গ্রামের সাহাব উদ্দিনের ছেলে শিপন আহমদ (১৯)।

জানা গেছে, কয়েকমাস থেকে আব্দুল হাকিমের সাথে ভিকটিম তরুণী (১৮) এর প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। শনিবার আব্দুল হাকিম তরুণী (১৮)-কে দেখা করার জন্য উপজেলার বাঘা মুরাদপুর বাজারে আসতে বলে। পরে ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে কৌশলে একটি সিএনজি অটোরিকশা যোগে তরুণীকে নিয়ে ঘটনাস্থল টিলার পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। এসময় পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সহযোগীরা ভিকটিমকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ভিকটিমের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার ও অভিযুক্তদের আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়ে তাদরেকে থানায় নিয়ে আসে। পরে তাদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা (নং-২৩) দায়ের করা হয়। বর্তমানে ভিকটিম তরুণী সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ চৌধুরী বলেন, অভিযুক্তদের আদালত মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।