সুপার কাপ জিতল বার্সেলোনা,এল ক্লাসিকোতে হার রিয়ালের!

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক! 

কোথায় গেল এল ক্লাসিকোর (El Classico) সেই গনগনে তেজ! কোথায় সেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা! স্প্যানিশ সুপার কাপ ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের (Real Madrid) অসহায়

আত্মসমর্পণ দেখে অনেক ফুটবলভক্তেরই এমন সব কথা মনে হতে পারে। জ্যাভির হাত ধরে বার্সেলোনা ফের টিকিটাকার ফুল ফোটাল এল ক্লাসিকোয়।

বছরের প্রথম এল ক্লাসিকো ছিল। সেই ম্যাচ বার্সেলোনা (Barcelona) জিতে নিল ৩-১ গোলে। গাভি, লেওয়নডস্কি ও পেড্রি রিয়ালকে মাটি ধরান।

খেলার একেবারে শেষের দিকে করিম বেঞ্জেমা গোল করে ব্যবধান কমান। বলা ভাল রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে সান্ত্বনা গোল করলেন ফরাসি স্ট্রাইকারটি।

কিং ফাহাদ আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ছিল এল ক্লাসিকো। শুরুর দিকে অবশ্য দু’ দলই সুযোগ তৈরি করেছিল। কিন্তু ম্যাচটা যে একপেশে হয়ে যাবে, তা কি কেউ ভেবেছিলেন? মিনিট পনেরোর মধ্যেই গোল করার সুযোগ এসে গিয়েছিল বার্সার সামনে।

পোলিশ তারকা লেওয়নডস্কির শট রিয়ালের মেরুদণ্ড দিয়ে শীতল স্রোত বইয়ে দেয়। কুর্তোয়ার হাতে লেগে সেই শট রিয়ালের পোস্টে লাগে। এর পালটা রিয়াল দিয়েছিল। বেঞ্জেমার হেড লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় অল্পের জন্য।

৩৩ মিনিটে বার্সেলোনা রিয়ালের গোলমুখ খুলে ফেলে। লেওয়নডস্কির বাড়ানো বল পেয়ে গাভি এগিয়ে দেন বার্সাকে। সমতা ফেরানোর চেষ্টা করে রিয়াল। কিন্তু বিরতির ঠিক আগে বার্সা ফের এগিয়ে যায়।

এবার গাভির পাস থেকে গোল করেন লেওয়নডস্কি। প্রথর্মাধেই দু’ গোল হজম করায় ম্যাচ থেকে হারিয়ে যায় রিয়াল। বিরতির পরপরই তিন গোলে এগিয়ে যেতে পারত বার্সেলোনা। দেম্বেলেকে বঞ্চিত করেন রিয়াল গোলকিপার কুর্তোয়া। ম্যাচের বয়স ৫১ মিনিট।

এর ঠিক মিনিট তিনেক বাদে লেওয়নডস্কির সামনে সুযোগ এসে গিয়েছিল। কিন্তু সেই যাত্রায় ব্যর্থ হন তিনি। ৬৯ মিনিটে পেড্রির গোল রিয়ালকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেয়।

ম্যাচে ফেরার সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায় রিয়ালের। বেঞ্জেমারা ব্যবধান কমানোর চেষ্টা করছিলেন। বার্সার গোলকিপার টার স্টেগেন বারের নীচে অপ্রতিরোধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। ফলে রিয়াল পালটা আক্রমণে গোল দিতে পারেনি তখন। খেলার একেবারে শেষলগ্নে কাঙ্খিত গোল পায় রিয়াল। বেঞ্জেমা গোলটি করেন রিয়ালের হয়ে। দিনের শেষে হাসছেন বার্সার ম্যানেজার জাভি।

খেলোয়াড়জীবনে এরকম কত এল ক্লাসিকোই তো জিতেছেন তিনি। একদিন বার্সার জার্সিতে যে টিকিটাকা ফুটবল খেলে ফুল ফুটিয়েছিলেন জাভি, এবার কোচ হিসেবে তাঁর দল সেই ফুটবলই তুলে ধরেছে। বার্সা কোচ হিসেবে জাভির প্রথম ট্রফি।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -