advertisement

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে ভারতীয় প্রতিরক্ষাপ্রধান বিপিন রাওয়াত নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক |

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় মারা গেছেন ভারতের প্রতিরক্ষাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। শুধু তিনিই নন, এ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন রাওয়াতের স্ত্রী, প্রতিরক্ষা সহকারী, নিরাপত্তা কমান্ডো, বিমানবাহিনীর কর্মকর্তাসহ আরও ১২ জন। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ভারতীয় বিমানবাহিনীর পক্ষ থেকে এক টুইটে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

এর আগেই অবশ্য ভারতীয় গণমাধ্যমে জানানো হয়েছিল, বিপিন রাওয়াতকে বহনকারী হেলিকপ্টারের ১৪ আরোহীর মধ্যে ১৩ জনই নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত এক পুরুষ আরোহীকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে সেসময় বিপিন রাওয়াত জীবিত নাকি মৃত তা নিশ্চিত ছিল না। শেষ পর্যন্ত ভারতীয় বিমানবাহিনীই বিষয়টি নিশ্চিত করলো।

এক টুইটে তারা বলেছে, গভীর দুঃখের সঙ্গে নিশ্চিত করা হচ্ছে যে, জেনারেল বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াত এবং হেলিকপ্টারে থাকা আরও ১১ জন দুর্ভাগ্যজনক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।

স্থানীয় সময় বুধবার (৮ ডিসেম্বর) সকালে দেশটির তামিলনাড়ু রাজ্যে সামরিক হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। এর পরপরই ভারতীয় বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিপিন রাওয়াতকে নিয়ে এমআই-১৭ ভি৫ হেলিকপ্টারটি তামিলনাড়ুর কুনুরে দুর্ঘটনায় পতিত হয়েছে। দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্তের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, হেলিকপ্টারটি নীলগিরি জেলার ওয়েলিংটন ডিফেন্স সার্ভিস ট্রেইনিং ইনস্টিটিউশনের উদ্দেশে যাত্রা করেছিল। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে এ ঘটনার বেশ কিছু ফুটেজ প্রকাশ করা হয়েছে। এতে হেলিকপ্টারটির ধ্বংসাবশেষ পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

ভয়াবহ এ দুর্ঘটনায় ভুক্তভোগীদের মধ্যে মাত্র একজন এখনো বেঁচে রয়েছেন। ভারতীয় বিমান বাহিনীর ওই গ্রুপ ক্যাপ্টেনও মারাত্মকভাবে দগ্ধ। তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বিপিন রাওয়াত ভারতের প্রথম চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএফ)। ২০১৯ সালে ভারত সরকার পদটি তৈরির পর থেকেই এর দায়িত্বে রয়েছে তিনি। বিপিন রাওয়াত ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত। তিনি ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অন্যতম উপদেষ্টাও।

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে প্রায় চার দশক ভারতীয় সামরিক বাহিনীতে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে এ কর্মকর্তার। একসময় ভারতশাসিত কাশ্মীর এবং চীন সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর সামরিক বাহিনীর নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

ভারতের উত্তর-পূর্ব সীমান্তে সশস্ত্র সংঘাত কমানো এবং প্রতিবেশী মিয়ানমারে আন্তঃসীমান্ত বিদ্রোহ দমন অভিযানে তদারকির জন্য বিপিন রাওয়াতকে অনেকটা কৃতিত্ব দেওয়া হয়।

spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -spot_img

সর্বাধিক পঠিত