৩ নায়িকার রাজত্ব বছরজুড়ে

 

 

 

বিনোদন ডেস্ক: 

দরজায় কড়া নাড়ছে ২০২৩। চলতি বছরে ভারতের তেলেগু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বেশ কিছু আলোচিত সিনেমা উপহার দিয়েছে। এ তালিকায় রয়েছে— ‘ট্রিপল আর’, ‘সীতা রামাম’, ‘কার্তিকেয়া’, ‘মেজর’ প্রভৃতি।

তবে তিনজন নায়িকা তেলেগু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে সেরা তিনটি স্থান নিজ গুণে দখল করে রাখেন। চলতি বছর তারা এই ইন্ডাস্ট্রিতে রাজত্ব করেছেন; পাশাপাশি মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিকও নিয়েছেন।

রাশমিকা মান্দানাঃ
কন্নড় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে তেলেগু ফিল্ম ইন্ডিাস্ট্রিতে পা রাখেন রাশমিকা মান্দানা। তার ক্যারিয়ার এখন তুঙ্গে। বলা যায়, রকেটের গতিতে ছুটছে! ২০২১ সালে রাশমিকা অভিনীত ‘পুষ্পা’ সিনেমা বক্স অফিসে রাজত্ব করেছে।

গত বছরের শেষে মুক্তি পাওয়ায় চলতি বছরের অনেকটা সময় প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হয়েছে এটি। যার কারণে চলতি বছরেও সিনেমাটির দাপট বক্স অফিসে ছিল। চলতি বছর রাশমিকা অভিনীত ‘আদাভাল্লু মিকু ওয়ারলু’ ও ‘সিতা রামাম’ মুক্তি পায়।

‘আদাভাল্লু মিকু ওয়ারলু’ সিনেমাটি বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়। কিন্তু দুলকার সালমান-রাশমিকার ‘সিতা রামাম’ বক্স অফিস দাপিয়ে বেড়ায়। তার অভিনীত কয়েকটি সিনেমা বক্স অফিসে ব্যর্থ হলেও ‘সিতা রামাম’ তাকে ড্রাইভিং সিটে ফিরিয়ে আনে।

২০২৩ সালে রাশমিকা অভিনীত ‘বারিসু’, ‘পুষ্পা-টু’, ‘অ্যানিমল’, ‘মিশন মজনু’ মুক্তি পাবে। প্রতি সিনেমার জন্য ৩-৫ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নিচ্ছেন।

 

সামন্থা রুথ প্রভুঃ
চলতি বছরে সামান্থা রুথ প্রভু অভিনীত তেলেগু ভাষার একটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। গত নভেম্বরে মুক্তি পায় ‘যশোদা’। এ ছাড়া তামিল ভাষার ‘কাতুবাকুলা রেন্ডু কাধাল’ সিনেমাটি মুক্তি পায়।

দুটি সিনেমাই বক্স অফিসে সাড়া ফেলে। আর বরাবরের মতো সামান্থা নিজেকে প্রমাণ করেন। গত অক্টোবরে সামান্থা জানান, মায়োসাইটিস নামে এক জটিল রোগে ভুগছেন তিনি।

সম্প্রতি জানা যায়, শারীরিক অসুস্থতার কারণে কাজ থেকে বিরতি নেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন এই নায়িকা। আগামী বছর সামান্থা অভিনীত বেশ কিছু সিনেমা মুক্তি পাবে। সামান্থা প্রতি সিনেমার জন্য পারিশ্রমিক নিচ্ছেন ৫ কোটি রুপি।

 

পূজা হেগড়েঃ
পূজা হেগড়ে অভিনীত ‘রাধে শ্যাম’, ‘আচার্য’ সিনেমা চলতি বছরে মুক্তি পেয়েছে। এসব সিনেমায় যথাক্রমে অভিনয় করেছেন— প্রভাস, চিরঞ্জীবী, রাম চরন।

চলতি বছরে পূজা অভিনীত ‘বিস্ট’ সিনেমা মুক্তি পায়। এতে বিজয়ের সঙ্গে জুটি বেঁধে পর্দায় হাজির হন। যদিও বক্স অফিসে ব্যর্থ এ সিনেমা। ‘এফথ্রি’ সিনেমায় অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। মুক্তির পর এই সিনেমা বক্স অফিসে সফলতা পায়।

যদিও তার অভিনীত ‘রাধে শ্যাম’, ‘আচার্য’ সিনেমা বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। কিন্তু এতে পূজা হেগড়ের জনপ্রিয়তা বা চাহিদা মোটেও কমেনি। বরং মহেশ বাবুর পরবর্তী সিনেমায় তাকে দেখা যাবে। আর এ সিনেমা পরিচালনা করছেন গুণী নির্মাতা ত্রিবিক্রম শ্রীনিবাস। প্রতিটি সিনেমার জন্য পূজা পারিশ্রমিক নিয়েছেন প্রায় ৪ কোটি রুপি।

 

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -