৫ গোলের রোমাঞ্চে বায়ার্নকে হারাল পিএসজি

0
233

নেইমার-এমবাপে যুগলবন্দী
স্পোর্টস

সাত মাস আগে যাদের বিপক্ষে হেরে স্বপ্ন ভেঙেছিল, সেই বায়ার্ন মিউনিখকে পেয়ে জ্বলে উঠলেন কিলিয়ান এমবাপে ও নেইমার। দুই তারকা ফরোয়ার্ডের নৈপুণ্যে জার্মান দলটিকে তাদের মাঠেই হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল পিএসজি।

আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় বুধবার রাতে রোমাঞ্চ ছড়ানো কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-২ গোলে জিতেছে পিএসজি। প্রথম আধা ঘণ্টায় এমবাপে ও মার্কিনিয়োসের গোলে পিছিয়ে পড়ার পর ঘুরে দাঁড়ায় গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। এরিক-মাক্মিম চুপো মোটিং ব্যবধান কমানোর পর সমতা টানেন টমাস মুলার। পরে এমবাপের দ্বিতীয় গোলে জয় নিয়ে ফেরে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা।

গত বছর আগস্টে ২০১৯-২০ আসরের ফাইনালে পিএসজিকে ১-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা উৎসব করেছিল বায়ার্ন। ভাঙা হৃদয়ে মাঠ ছেড়েছিল পিএসজি। প্রতিশোধের মিশনে এক ধাপ এগিয়ে গেল তারা।

এতে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিলেন এমবাপে ও নেইমার। শেষ ষোলোর প্রথম লেগে বার্সেলোনার মাঠে হ্যাটট্রিক করে পার্থক্য গড়ে দিয়েছিলেন এমবাপে। এবার করলেন জোড়া গোল। দুটি গোলেই অবদান রাখলেন নেইমার।

ম্যাচের আগে প্রতিপক্ষের এই ‘ভয়ঙ্কর’ জুটির কথা আলাদা করে বলেছিলেন বায়ার্ন কোচ। তাদের ঠেকিয়ে রাখতে পরিকল্পনাও ছিল তার। কিন্তু তা কাজে এলো না। প্রথম লেগে নেইমার-এমবাপে জুটিই দিল ধাক্কা।

ঘরের মাঠে হেরে যাওয়ায় টিকে থাকার চ্যালেঞ্জ অনেক কঠিন হয়ে পড়েছে বায়ার্নের জন্য। আগামী মঙ্গলবার ফিরতি পর্বে প্রতিপক্ষের মাঠে কমপক্ষে দুই গোলের ব্যবধানে জিততে হবে তাদের। অন্যদিকে, ঘরের মাঠে ড্র করলেই যথেষ্ট হবে পিএসজির। এমনকি হারলেও সুযোগ থাকবে তাদের, কেননা তিনটি অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা তো থাকছেই।