৬৫ লাখ টাকায় বিক্রি হলো অপমান!

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক!

সংসদে দাঁড়িয়ে বিরোধী দলের এক সাংসদের প্রশ্নের জবাব দিচ্ছিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। সেই প্রশ্নে একটু বিরক্তই হয়েছিলেন তিনি।

উত্তর শেষে চেয়ারে বসে বিড়বিড় করে গালি দেন সেই সাংসদকে। তৎক্ষণাৎ সেই বাক্য ধরা পড়ে তার মাইকে এবং তা রেকর্ড হয়ে যায়, আর যুক্ত হয় প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে। তার স্বাক্ষরিত সেই নথি বিক্রি হয়েছে প্রায় ৬৫ লাখ টাকায়।

ডেভিড সাইমুর নামের সেই সাংসদ নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন রেখেছিলেন, “তিনি কি এমন কোনো উদাহরণ দেখাতে পারবেন, যেখানে কোনো ভুলের কারণে তিনি ক্ষমা চেয়েছেন এবং তা শোধরে নিয়েছেন।”

বিবিসি জানায়, আক্রমণাত্মক এই প্রশ্নে একটু বিরক্ত হয়েই উপযুক্ত উত্তর দেন তিনি। তবে চেয়ারে বসে বিড়বিড় করে বলেন, “অহংকারী অসভ্য একটা।”

তার এই অপমানজনক বাক্যটি রেকর্ড হয়ে যায় এবং সংসদের দাপ্তরিক নথিতে ওঠে যায়। যদিও পরবর্তীতে এই বক্তব্যের জন্য সাইমুরের কাছে ক্ষমা চান জাসিন্ডা।

অন্যদিকে এই বক্তব্য নিলামে তুলে বিক্রি করে সেই টাকা দেশটির প্রোস্টেট ক্যান্সার ফাউন্ডেশনে দান করার প্রস্তাব দেন সাইমুর।

যেই কথা সেই কাজ। রাজনৈতিক বিদ্বেষ থাকলেও দুজনে এই কাজে হাত মেলান এবং নথিতে স্বাক্ষর করেন। নিলামে দর হাঁকিয়ে প্রায় ৬৩ হাজার ২০০ ডলারে সেই নথি কিনে নেন জুলিয়ান শর্টেন নামের এক ব্যক্তি।

তিনি জানান, এই টাকা পরিশোধ করতে তাকে ব্যাংক থেকে লোন নিতে হবে। তবে নথিটি কিনে সন্তুষ্ট তিনি। কারণ তিনি মনে করেন এই নথিটি নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসের অংশ।

 

 

 

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -