rগবেষক ছাত্রীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ উঠেছে কলকাতার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকের বিরুদ্ধে।।

0
46

থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের লিঙ্গুইস্টিক বিভাগের এক অধ্যাপকের বিরুদ্ধে তার বিভাগের একটি ছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করে তাকে প্রত্যাখ্যান করেন। ঔ গবেষক ছাত্রী অবশেষে ঔ অধ্যাপকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন কলকাতার যাদবপুর থানায়। যার পরিপ্রেক্ষিতে যাদবপুর থানা ঔ অধ্যাপকের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। যা ভারতীয় দন্ডবিধির, ৪১৭,৩৭৬,ও, ৫০৬,ধারা, প্রয়োগ করা হয়েছে। ঘটনার সূত্রপাত লিঙ্গুইস্টিক বিভাগের অধ্যাপক এর কাছে গবেষণা করতেন। সেই সাথে তার সাথে আলাপ হয়। পরে ফোনে যোগাযোগ হয়। বাড়তে থাকে ঘনিষ্ঠতা এর পর ঔ অধ্যাপক বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সাথে দীর্ঘদিন ধরে সহবাস করে আসছিলেন। কিন্তু ইদানীং তাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তিনি অস্বীকার করে। তখন ঔ ছাত্রী সম্পূর্ণ ভাবে ভেঙে পড়েন। এবং ঔ অধ্যাপকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন যাদবপুর থানাতে এবং এই কেসের ভার তুলে দেওয়া হয় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারনাল কমপ্লেন বিভাগে। তবে এই ঘটনার বিষয়ে অভিযুক্ত লিঙ্গুইস্টিক বিভাগের অধ্যাপক কিছু জানতে অস্বীকার করে। তদন্ত চলছে, ঔ গবেষক ছাত্রীকে হসপিটালে ভর্তি করা হয়েছে পরিক্ষার জন্য। তবে এই ঘটনার পর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সম্মান ছিল তা সারা বিশ্বের কাছে অনেকাংশেই কমে যাবে। কারণ এই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে আসেন পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ছাত্র ও ছাত্রীরা।ঘটনা কোন দিকে অগ্রসর হয় তা দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।।